বাংলাদেশ-ভারত প্রতিরক্ষা চুক্তি প্রকাশের দাবি বিএনপির

22
বাংলাদেশ-ভারত প্রতিরক্ষা চুক্তি প্রকাশের দাবি বিএনপির
বিজ্ঞাপন

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ভারতের সঙ্গে প্রতিরক্ষা চুক্তি সইয়ের ফলে বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব বিপন্ন হবে কি না, বিভিন্ন মহলে এই সংশয় দেখা দিয়েছে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, সব জনমতকে উপেক্ষা করে সরকার হঠাৎ বাংলাদেশ-ভারত প্রতিরক্ষা সহযোগিতা চুক্তি সই করেছে।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে রুহুল কবির রিজভী এসব কথা বলেন। এই চুক্তিকে গোপন বলে অভিহিত করে জনসমক্ষে প্রকাশ করার জন্য দাবি জানান তিনি।

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘প্রতিরক্ষা সহযোগিতায় ঋণ বাস্তবায়ন এবং সার্বিক সহযোগিতার বিস্তার ঘটাতে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে মোট চারটি সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে বলে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। এই চুক্তি সইয়ের ফলে বাংলাদেশের নিরাপত্তা ঝুঁকিতে পড়বে বলে বিশিষ্টজনেরা মনে করেন।’

রুহুল কবির রিজভী আরও বলেন, ‘ভারত আমাদের সবচেয়ে নিকটতম প্রতিবেশী। ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের তিন দিক দিয়েই সীমান্ত রয়েছে। একই সঙ্গে রয়েছে সীমান্ত প্রতিযোগিতা। তাদের সঙ্গে সীমান্ত প্রতিরক্ষা চুক্তি স্বাক্ষর হওয়ায় দেশের সার্বভৌমত্ব হুমকির মুখে পড়বে। দেশের মানুষকে না জানিয়ে এ ধরনের দেশবিরোধী চুক্তির খবরে গোটা জাতি হতভম্ব ও চিন্তিত হয়ে পড়েছে।’

অন্য খবর  ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে তীব্র যানজট

রিজভী অভিযোগ করে বলেন, ১০ দিন ধরে পরিবারের কোনো সদস্য বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে পারছেন না। কারাগারে খালেদা জিয়ার সঙ্গে তাঁর পরিবারের সদস্যদের সাক্ষাৎ করার সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য জয়নুল আবদিন ফারুক, আবদুস সালাম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ ছিলেন।

Comments

comments