বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের টেস্ট রান ৪ মে

43
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের টেস্ট রান ৪ মে
বিজ্ঞাপন

দেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ এর উৎক্ষেপণপূর্ব প্রস্ততিমূলক পরীক্ষা (টেস্ট রান) চালানো হবে ৪ মে (বাংলাদেশ সময় ৫ মে)। এদিন যেকোনও সময় পরীক্ষা চালানো হবে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান। টেস্ট রান কার্যক্রম পরিদর্শনে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি।

এই উৎক্ষেপণপর্ব দেখতে ড. সিদ্দিক তার নেতাকর্মী ও বাংলাদেশ থেকে আগত সাংবাদিক ও যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সাংবাদিকদের সঙ্গে নিয়ে তিনি ফ্লোরিডার অরল্যান্ডোতে অবস্থান করছেন। টেস্ট রান দেখতে আসা প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বও দিচ্ছেন তিনি। স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ হবে ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে।

ড. সিদ্দিক বলেন, ‘৪ তারিখ আমাদের সারাদিনের অনুষ্ঠান। দিনের কোনও এক সময় টেস্ট রান সম্পন্ন হবে। টেস্ট রান সফল হলে স্পেসএক্স (স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণকারী প্রতিষ্ঠান) আমাদের জানিয়ে দেবে কবে, কখন স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা সম্ভব হবে। তখন আমরা দেরির কারণটাও জানতে চাইবো।’ তিনি আরও বলেন, ‘এখন পর্যন্ত স্পেসএক্স আমাদের পরিষ্কার করে জানায়নি কেন তাদের এত দেরি হচ্ছে।’ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণে দেরি হওয়ার পেছনে অবহেলা, কারিগরি কোনও ত্রুটি, কোনও সুবিধাবাদীদের পক্ষ অবলম্বন করা হচ্ছে না বলে তিনি দাবি করেন। মূলত আবহাওয়ার কারণেই দেরি হচ্ছে বলে মনে করেন তিনি।

অন্য খবর  বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মার্চে উৎক্ষেপণ করা হবে

ড. সিদ্দিক আরও জানান, টেস্ট রান সফল হলে ৮ মে বিকাল ৪-৫টার মধ্যে (বাংলাদেশ সময় ৯ মে ভোর) স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হলেও হতে পারে বলে জানতে পেরেছেন তিনি। ড. সিদ্দিক আরও বলেন, ফ্লোরিডার আবহাওয়ার যে চরিত্র, তাতে আসলে নিশ্চিত করে কিছু বলা সম্ভব নয়।

বাংলাদেশ অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক ও শৌখিন জ্যোতির্বিদ এফ আর সরকারও স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ দেখতে এখন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। তিনি বলেন, কেনেডি স্পেস সেন্টারে গিয়ে আমি স্পেসএক্স’র প্রস্তুতি দেখে এসেছি। লঞ্চিং প্যাড রেডি। রকেট ফ্যালকন নাইনও রেডি। এখন কেবল কারিগরি পরীক্ষা শেষে এটা মহাকাশে পাঠাতে হবে।’ তিনিও আবহাওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে বলেন, কবে যে আবহাওয়া শতভাগ ভালো থাকবে তা বলা মুশকিল।

আটলান্টিক মহাসাগর পাড়ের এই শহরটির আবহাওয়া বৃহস্পতিবার ভালোই ছিল। আকাশ কিছুটা মেঘলা থাকলেও সারাদিনই ছিল ঝকঝকে রোদ আর বাতাস। দিনের তাপমাত্রা ছিল ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার তা হবে ৩০ ডিগ্রি পর্যন্ত।

এর আগে আবহাওয়া খারাপ হতে পারে এ আশঙ্কায় ৫ মের স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণপর্ব পিছিয়ে যায়। অন্যদিকে, বাংলাদেশের টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক বিটিআরসির চেয়ারম্যান সম্প্রতি বলেছিলেন, স্পেসএক্স জানিয়েছে ৫ মে নয়, ৭ মে মহাকাশে স্যাটেলাইট পাঠানো হবে। সেই তারিখেও এখন স্যাটেলাইট পাঠানো সম্ভব হচ্ছে না। এ নিয়ে একাধিকবার (অন্তত ৬-৭ বার) উৎক্ষেপণের তারিখ পরিবর্তন হয়েছে।

অন্য খবর  রাতে এসএমএসে বিরক্ত নয়

স্যাটেলাইটটি নির্মাণ করেছে ফ্রান্সের থ্যালাস অ্যালেনিয়া নামের একটি প্রতিষ্ঠান। স্যাটেলাইটের কাঠামো তৈরি, উৎক্ষেপণ, ভূমি ও মহাকাশের নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা, ভূ-স্তরে দুটি স্টেশন পরিচালনার দায়িত্ব এ প্রতিষ্ঠানটিরি। এই প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ২ হাজার ৯৬৭ কোটি টাকা। স্যাটেলাইটে থাকছে ৪০টি ট্রান্সপন্ডার। এগুলোর মধ্যে প্রাথমিকভাবে ২০টি ব্যবহার করবে বাংলাদেশ। অন্যগুলো ভাড়া দেওয়া হবে। স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ এর গ্রাউন্ড স্টেশন তৈরি করা হয়েছে গাজীপুর ও রাঙামাটিতে।

Comments

comments