ফেসবুকে পরীক্ষামূলকভাবে চালু হলো ‘ডাউনভোট’ বাটন

40
ডাউনভোট
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্রের পর এবার নিউজিল্যান্ডে ‘ডাউনভোট’ বাটন চালু করেছে ফেসবুক। পরীক্ষামূলকভাবে এটি চালু করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। নিউজিল্যান্ডের আগে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্রেও পরীক্ষামূলভাবে এটা চালু হয়েছিল।

ভৌগলিকভাবে নিউজিল্যান্ডে ফিচারটি চালু হলেও অস্ট্রেলিয়ার কিছু ব্যবহারকারীও এটা ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছেন বলা শোনা যাচ্ছে। যদিও ফেসবুক এ বিষয়ে কিছু জানায়নি।

মূলত কারও আপত্তিকর বা অপছন্দের মন্তব্য মুছে ফেলা বা লুকিয়ে রাখার জন্য কাজ করবে ডাউনভোট বাটন। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই টুল এত তাড়াতাড়ি সবার জন্য চালু করা হবে না।

ডাউনভোট বাটনকে অনেকে ডিসলাইক বাটন হিসেবে চিহ্নিত করে থাকেন। তবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এটাকে ডিসলাইক বাটন বলতে রাজি নয়।

ফেব্রুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্রে পরীক্ষামূলকভাবে এটা চালু হওয়ার সময় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। অনেকে ডাউনভোট বাটনকে স্বাগত জানালেও কিছু ব্যবহারকারী এর সমালোচনা করে।

এটা চালু হওয়ার সময় বিশ্লেষকরা বলেছিলেন, ব্যবহারকারীরা অনেক দিন থেকেই কারও পোস্টকে ‘ডিসলাইক’ বা অপছন্দ করা যায় এমন একটি বাটন চাইছিলেন। এই চাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতেই ফেসবুক ডাউনভোট ফিচার এনেছে।

এই টুলের সমালোচনা করে কিছু প্রযুক্তি বিশ্লেষক বলেছিলেন, এটা ফেসবুক ব্যবহারকারীদের নিরুৎসাহিত করবে।

অন্য খবর  ২০০ জিবির মাইক্রো এসডি কার্ড

Comments

comments