প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের ফলাফল কবে? বেড়েছে পদসংখ্যা

20
প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ লিখিত পরীক্ষা ২০১৮ শেষ হয়েছে। প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা ৬ অক্টোবর থেকে সারা দেশে শুরু হয়েছে ইতোমধ্যে মৌখিক পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। পরীক্ষার্থীরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের চূড়ান্ত ফলাফল কবে দিবে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষার ফলাফল। দোহারে প্রায় ১৭০ জন সহ দোহার নবাবগঞ্জ থেকে প্রায় ৪০০ জন মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে। এরমধ্যে দোহারে প্রায় ৩৫ ও নবাবগঞ্জে ৬০ জন নিয়োগ হতে পারে বলে জানা গেছে।

প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের সম্ভাব্য সময়সীমা আগামী ডিসেম্বরের প্রথম সাপ্তাহে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশের এ তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা শেষে সারা দেশে মোট ১৮ হাজার ৫০০ জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। সারা দেশে শূন্য আসনের ভিত্তিতেই এই সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী জানুয়ারি থেকে এসব শিক্ষকরা পাঠদান শুরু করবে। তিনি আরো বলেন, নিয়োগ কার্যক্রম শেষে নতুন করে সারা দেশে প্রাক প্রাথমিক পর্যায়ে ২৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।

অন্য খবর  ১৯১২ সাল থেকে দোহার-নবাবগঞ্জে আলো ছড়াচ্ছে যারা

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের পরবর্তী করণীয় বিষয়াবলী?

উত্তীর্ণ প্রার্থীদের অনলাইনে আবেদনের আপলোডকৃত ছবি, আবেদনের কপি, লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্র, নাগরিকত্বের সনদসহ বিভিন্ন কোটায় অংশগ্রহণকারীদের সনদ ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের অনুলিপি কমপক্ষে নবম গ্রেডের গেজেটেড কর্মকর্তার মাধ্যমে সত্যায়িত করে নিজ নিজ জেলায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে জমা দিয়ে প্রাপ্তি স্বীকারপত্র সংগ্রহ করতে হবে।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষার পরিসংখ্যান?

উল্লেখ্য প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার প্রথম ধাপে ২৪ মে ও দ্বিতীয় ধাপে ৩১ অনুষ্ঠিত হয়। তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা ২১ জুন এবং চতুর্থ ধাপের পরীক্ষা ২৮ জুন অনুষ্ঠিত হয়।

গত বছরের ৩০ জুলাই ‘সহকারী শিক্ষক’ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। গত ১ থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন কার্যক্রম শেষ হয়। ১২ হাজার আসনের বিপরীতে সারাদেশ থেকে মোট ২৪ লাখ ৫ জন প্রার্থী আবেদন করেন। সে হিসাবে প্রতি আসনে লড়ছেন ২০০ জন।

Comments

comments