প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে দোহার স্বেচ্ছাসেবকলীগের দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

43
প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে দোহার স্বেচ্ছাসেবকলীগের দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৪টায় দোহার উপজেলার রতন চত্বরে দোহার উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি বাসার চোকদারের সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীঘার্য়ু কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত হয়।
দোয়া কামনা অনুষ্ঠানে বাসার চোকদার বলেন, আল্লাহ যেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আরো দীর্ঘ হায়াত দান করে । তিনি যেন দেশের কল্যাণে সোনার বাংলা গড়তে আরো এগিয়ে যেতে পারেন। আমরা যারা তার কর্মি, তার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে পারি সেজন্য সততা, দেশপ্রেম নিয়ে এগিয়ে যেতে পারি। সেই দোয়া কামনা করি।
সেসময় আরো উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকা জেলা সহ-সভাপতি মাজহারুল ইসলাম, জেলা সদস্য আব্দুল কদ্দুস, জামান উদ্দিন, রায়হান বেপারি, জামান বেপারী, মনির হোসেন, রাশেদ চোকদার, রাফি মাঝি প্রমুখ।
উল্লেখ্য ১৯৪৭ সালের এইদিনে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বেগম শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের প্রথম সন্তান। রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান হিসেবে ছাত্রজীবন থেকে প্রত্যক্ষ রাজনীতির সঙ্গে জড়িত হন শেখ হাসিনা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি লাভকারী শেখ হাসিনা তৎকালীন ছাত্রলীগের অন্যতম নেতা ছিলেন।
১৯৭৫ সালের পটপরিবর্তনের পর ১৯৮১ সালে দেশে ফিরে আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে দলীয় প্রধানের দায়িত্ব নেন বঙ্গবন্ধুকন্যা। এরপর থেকে ৩৯ বছর ধরে নিজ রাজনৈতিক প্রজ্ঞা ও আপসহীন নেতৃত্বের মাধ্যমে দেশের অসাম্প্রদায়িক-গণতান্ত্রিক রাজনীতির মূল স্রোতধারার প্রধান নেতা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন তিনি। তার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ এবং অন্য রাজনৈতিক জোট ও দলগুলো ১৯৯০ সালে স্বৈরাচারবিরোধী গণআন্দোলনের মাধ্যমে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে বিজয়ী হয়। ১৯৯৬ সালে তার নেতৃত্বেই তৎকালীন বিএনপি সরকারের পতন ও তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে বিজয় অর্জন করে আওয়ামী লীগ।

Comments

comments