পর্তুগালকে ইউরো জিতিয়েও বিশ্বকাপে নেই রেনাতো

46
পর্তুগাল

দুই বছর আগে পর্তুগালকে ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ জেতানো পথে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন রেনাতো সানচেস। অথচ তাকে ছাড়াই বিশ্বকাপের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছেন ফের্নান্দো সান্তোস। ৩৫ জনের এই দলকে নেতৃত্ব দেবেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো।

২০১৬ সালের ইউরো জয়ে দারুণ ভূমিকা রেখেছিলেন ২০ বছর বয়সী মিডফিল্ডার। ফ্রান্সের ওই প্রতিযোগিতায় তিনি খেলেছিলেন সর্বকনিষ্ঠ পর্তুগিজ হিসেবে। একটি গোলের পাশাপাশি দলকে শিরোপা জিতিয়ে টুর্নামেন্টের সেরা তরুণ খেলোয়াড় হয়েছিলেন রেনাতো।

ইউরো শেষে বায়ার্ন মিউনিখে গিয়ে হঠাৎ করে ফর্ম পড়ে যায় তার। ধারে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে সোয়ানসি সিটিতে এলেও সেখানে ঘুরে দাঁড়াতে পারেননি। ফর্মে না থাকায় জায়গা হলো না বিশ্বকাপে।

পর্তুগালের ৩৫ জনের প্রাথমিক স্কোয়াড:

গোলরক্ষক: আন্থনি লোপেস (লিওঁ), রুই পাত্রিসিও (স্পোর্তিং)।

ডিফেন্ডার: আনতুনেস (গেতাফে), ব্রুনো আলভেস (রেঞ্জার্স), সেদরিক সোয়ারেস (সাউদাম্পটন), জোয়াও কানসেলো (ইন্টার মিলান), জোজে ফন্তে (দালিয়ান ইফাং), লুইজ নেতো (ফেনারবাখচে), মারিও রুই (নাপোলি), নেলসন সেমেদো (বার্সেলোনা), পেপে (বেসিকতাস), রাফায়েল গেহেইরো (বরুশিয়া ডর্টমুন্ড), রিকার্দো পেরেইরা (পোর্তো), রোনালদো (অলিম্পিক মার্শেই), ই রুবিন দিয়াস (বেনফিকা)।

মিডফিল্ডার: আদ্রিয়েন সিলভা (লিস্টার সিটি), আন্দ্রে গোমেস (বার্সেলোনা), ব্রুনো ফের্নান্দেস (স্পোর্তিং), জোয়াও মারিও (ওয়েস্ট হ্যাম), জোয়াও মৌতিনিয়ো (মোনাকো), মানুয়েল ফের্নান্দেস (লোকোমোতিভ), রুবিন নেভিস (উলভারহ্যাম্পটন), সের্জিও অলিভেইরা (পোর্তো), উইলিয়াম কারভালো (স্পোর্তিং)।

অন্য খবর  চমকে ভরা ফ্রান্স দলে নেই লাকাজেত-মার্শিয়াল

ফরোয়ার্ড: আন্দ্রে সিলভা (এসি মিলান), বের্নারদো সিলভা (ম্যানচেস্টার সিটি), ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো (রিয়াল মাদ্রিদ), এদের (লোকোমোতিভ), জেসলন মারতিনস (স্পোর্তিং), গনসালো গেজিস (ভ্যালেন্সিয়া), নানি (লাৎসিও), পাউলিনিয়ো (ব্রাহা), রিকার্দো কুয়ারেজমা (বেসিকতাস), রোনি লোপিজ (মোনাকো)।

Comments

comments