পরিশ্রমের পুরস্কার পেয়েই আপ্লুত তামিম

33
তামিম ইকবাল

রেকর্ড বেশ কিছুই নিজের করে নিয়েছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাঠে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে সবচেয়ে বেশি রান, বাংলাদেশের হয়ে দেশের বাইরে এক সিরিজে সবচেয়ে বেশি রান… তামিম ইকবাল মানেই বাংলাদেশের ওয়ানডেতে নতুন সব রেকর্ড। তামিম অবশ্য নিজের চেয়ে দলের সবার অর্জনটাই বড় করে দেখছেন। তবে পরিশ্রমের ফসল ঘরে আসাটাই দিন শেষে বেশি তৃপ্তি দিচ্ছে তামিমকে।

প্রথম ম্যাচে অপরাজিত ১৩০ রান দিয়ে শুরু। এরপরের ম্যাচে ফিফটি, তার পর কাল আবার সেঞ্চুরি। তবে কোনো ইনিংসেই তামিমের সামনে কাজটা সহজ ছিল না, ঘাম ঝরিয়েই পেতে হয়েছে প্রতিটি রান। তামিম অবশ্য ম্যাচের শেষে দলের কথাই বললেন আগে।

‘২০১৫ সালের পর বোধ হয় এই প্রথম একটা সিরিজ জিতলাম (২০১৬ সালে সর্বশেষ আফগানিস্তানের সঙ্গে সিরিজ জয় এসেছিল)।আমরা অনেক আশা নিয়ে এসেছিলাম, কিন্তু টেস্টে আমরা আশা পূরণ করতে পাতিনি। সেজন্য ওয়ানডে সিরিজটা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আলহামদুদিল্লাহ, আমরা প্রথম ওয়ানডে খুব ভালোমতো কামব্যাক করেছি। দ্বিতীয়টাতে আমাদের জেতা উচিত ছিল। এই ম্যাচের আগে আমার কাছে সবচেয়ে ভালো লেগেছে, কেউই হাল ছাড়েনি। আর শেষ ওয়ানডেতে কন্ডিশন বা মাঠ ওদের পক্ষে ছিল। সেদিক দিয়ে চিন্তা করলে এই সিরিজ জেতাটা অবশ্যই আলাদা কিছু।’

অন্য খবর  ঢাকায় আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের সূচি ঘোষণা

তবে ধৈর্যের পুরস্কার পাওয়াটাই তাঁকে বেশি আপ্লুত করছে, সেটিও স্বীকার করলেন, ‘যখন আপনি রান করেন ও দল জেতে এর চেয়ে ভালো কিছু আর হতে পারে না। যেটা আমি বলতে পারি, আমি তিন ম্যাচেই খুবই ধৈর্য নিয়ে খেলেছি। আমি খুশি আমার ধৈর্যের পুরস্কার পেয়েছি। এমন না যে টেস্টে কষ্ট করিনি, কিন্তু সেটার ফল পাইনি। আর ওয়ানডেতে সবাই অনেক খেটেছে। যারা রান করেছে তারা অনেক কষ্ট করেছে, যারা রান করেনি তারাও অনেক কষ্ট করেছে।’

Comments

comments