পদ্মায় বাড়ছে পানি আতঙ্কে দোহারের ১৪ গ্রামবাসী

367
দোহার

গত তিন দিনের টানা ভারি বর্ষণ আর উজান থেকে বেয়ে আসা পানিতে দোহারের পদ্মা নদীতে পানি বেড়ে বিপদসীমা অতিক্রম করেছে। নদীর পানি প্রচণ্ড স্রোতে লোকালয়ে প্রবেশ করছে। ফলে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

সরেজমিন জানা যায়, উপজেলার নয়াবাড়ি, মাহমুদপুর, বিলাশপুর, নারিশা ও মুকসুদপুর ইউনিয়নের পদ্মা নদী তীরবর্তী প্রায় ১৪টি গ্রামে নদীর পানি হু হু করে ঢুকছে। এই অবস্থায় নদী তীরবর্তী ১৪টি গ্রামের প্রায় দশ হাজার মানুষ বন্যার শিকার হয়েছে। এভাবে পানি বাড়তে থাকলে তাদের ফসলি জমি,বাড়িঘর পানির নিচে তলিয়ে যাবে বলে আশঙ্কা করছেন নদী তীরবর্তী বাসিন্দারা।

দোহারের মাহমুদপুর, চর মাহমুদপুর, বাহ্রাঘাট, বিলাশপুর, নয়াবাড়ি, ধোয়াইর, মেঘুলা, রানীপুর ও মধুরচর এলাকায় অনেক ঘরবাড়ি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন অবকাঠামো পানিতে ডুবে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। এর আগে গত বছর পদ্মা নদীতে পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নদীভাঙন দেখা দিয়েছিল।

এ বিষয়ে দোহার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন জানান, দোহারের মাহমুদপুর, চর মাহমুদপুর, বাহ্রাঘাট, বিলাশপুর, নয়াবাড়ি, ধোয়াইর, মেঘুলা, রানীপুর ও মধুরচর এলাকায় ফসলি জমি, ঘরবাড়ি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন অবকাঠামো পানিতে ডুবে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। বিষয়টি ঢাকা-১ আসনের সাংসদ ও প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানকে জানানো হয়েছে।

অন্য খবর  এলাকার উন্নয়নে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবেঃ সালমা ইসলাম

Comments

comments