নসরুল হামিদ বিপুকে প্রবাসী নারীর আইনি নোটিশ

109

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপুকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী
শামীমুন নাহার লিপি। এতে তার প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভয়ভীতি প্রদর্শনের জন্য প্রতিমন্ত্রীকে দায়ী করেছেন। এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে সাত দিন সময় দেয়া হয়েছে। অন্যথায় আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ডাক ও রেজিস্ট্রিযোগে লিপির পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান এ নোটিশ পাঠান। তিনি বলেন, প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপুর নাম ব্যবহার করে কেউ যাতে আমার ক্লায়েন্ট শামীমুন নাহারের ক্ষতি করতে না পারে সেটা জানাতেই মন্ত্রীকে এই লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

নোটিশে বলা হয়েছে, আমি আমার মক্কেলের সঙ্গে পূর্ণ আলোচনা শেষ করে ও তার অনুমতি নিয়ে আপনাকে এই নোটিশ প্রদান করছি। আমার মক্কেল যুক্তরাষ্ট্রের একজন নাগরিক। তিনি একজন মানবাধিকারকর্মী ও হোপ’স ডোর বাংলাদেশ’র চেয়ারম্যান।
আমার মক্কেল ও আপনি দীর্ঘ সময় পারিবারিক বন্ধু ছিলেন।

তিনি ও তার পরিবার হয়রানি ও হুমকির শিকার হয়ে অনেক নিপীড়িত হয়েছেন।

তিনি দাবি করেন, আপনার উপস্থিতিতে তার সঙ্গে বেআইনি কার্যক্রম করা হয়। তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন ও হয়রানি করার উদ্দেশ্যে তার বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলা করা হয়। আমার মক্কেলের ওপর বেশ কয়েকবার আক্রমণ করা হয়। যার কারণে তিনি রামপুরা, শাহবাগ, বাড্ডা ও কাফরুল থানায় যথাক্রমে ১১৪, ৯৪৩, ৪৪৬, ৮৮০ ও ১০০ নং জিডি করেন ও মামলা করেন। তার কার্যালয়, হোপ’স ডোর বাংলাদেশ-এর ভবনে ঢুকে সন্ত্রাসীরা ভাংচুর করেছে। আমরা মক্কেলের ধারণা, এসব ঘটনার পেছনে আপনি জড়িত ছিলেন, যেগুলো ক্ষমতার অপব্যবহারের দৃষ্টান্ত।

অন্য খবর  নয়নশ্রীতে আ’লীগের নির্বাচনী সভায় তরুণের মৃত্যু

ওইসব বেআইনি কার্যক্রমের কারণে আমার মক্কেল মানসিকভাবে নিদারুণ যন্ত্রণা, নির্যাতন ভোগ করেছেন এবং অপূরণীয় আর্থিক ক্ষতির শিকার হয়েছেন। তার সুনামও নষ্ট হয়েছে। এসব হয়েছে আপনার ক্ষমতার অপব্যবহারের কারণে।
সাত দিনের মধ্যে এসব কার্যক্রম বন্ধ করতে বলা হয়েছে নোটিশে। একই সঙ্গে এসব কার্যক্রমের জন্য ক্ষতিপূরণ দিতেও বলা হয়। তা না হলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।

Comments

comments