নবাবগঞ্জ ছাত্রলীগ কমিটির বিরুদ্ধে অবস্থান একাংশের

১৪ ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের সাক্ষরিত কমিটি বাতিলের দাবিতে আন্দোলন কর্মসূচীর অংশ হিসেবে রবিবার অবস্থান কর্মসূচী করেছে নবাবগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের  বিক্ষুদ্ধ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। সদ্য ঘোষিত উপজেলা কমিটিকে ‘পকেট কমিটি’ আখ্যায়িত করে ওই কমিটি বাতিলের দাবিতে উপজেলা ছাত্রলীগের অপর একটি গ্রুপ এ আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে।

ছাত্রলীগের বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন, সাধারনত উপজেলা কমিটি অনুমোদন দেয় জেলা কমিটি। কিন্তু নবগঠিত কমিটির অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটি। এটা একটি ষড়যন্ত্রমূলক পকেট কমিটি। এ ধরনের পকেট কমিটি দলের জন্য ক্ষতিকর। আমরা এ কমিটি বাতিল করে অবিলম্বে সম্মেলনের মাধ্যমে উপজেলা ছাত্রলীগের একটি শক্তিশালী কমিটি গঠন করার দাবি জানাই।

উল্লেখ্য যে, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি বুধবার মেহেদী হাসান রানা কে সভাপতি ও সাইফুল বারী শান্তকে সাধারন সম্পাদক করে নবাবগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি এস. আর. সোহাগ ও সাধারন সম্পাদক এস. এম. জাকির হোসাইন স্বাক্ষরিত প্যাডে এ কমিটি ঘোষণা করা হয়। ফলে গত বৃহস্পতিবার কমিটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে তারা। বিক্ষোভ চলাকালে যানবাহন ভাংচুরের ঘটনাও ঘটে। আজ রবিবারও বেলা ১২টার দিকে তারা নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সড়কে অবস্থান নিয়ে কমিটি বাতিলের দাবি জানান।

অন্য খবর  যন্ত্রাইলে ইছামতি নদীর উপর ব্রীজের কাজ শুরু

Comments

comments