দোহার- নবাবগঞ্জে বন্যা দূর্গত এলাকায় সেনাবাহিনীর ত্রাণ বিতরণ

130

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৯ পদাতিক ডিভিশনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় বন্যাদুর্গত অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে সেনা সদস্যরা। গত প্রায় এক মাসেরও অধিক সময় কাল যাবত পদ্মা নদীর পানি কমতে থাকলেও দোহার ও নবাবগঞ্জ নদীর উপকূলবর্তী হাজার হাজার মানুষ বন্যা কবলিত হয়ে অসহায় ভাবে জীবন যাপন করছে। করোনা মহামারীর পাশাপাশি তীব্র বন্যার কারণে আয় রোজগার না থাকায় দোহার ও নবাবগঞ্জ উপজেলার অসংখ্য মানুষের জীবন আজ দুর্বিষহ। এই সকল মানুষকে বাঁচিয়ে রাখার তাগিদে গত কিছুদিন যাবত বন্যা পীড়িত মানুষদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করে আসছে ৯ পদাতিক ডিভিশনের সেনা সদস্যরা। এরই ধারাবাহিকতায় আজ নবাবগঞ্জ – মাঝিরকান্দা, কোমরগঞ্জ, আগলা ও দোহার- কারতিকপুর, চরবিলাপুর, মৈয়নট ঘাট প্রায় ৫০ টিপরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। বিতরণকৃত ত্রাণসামগ্রীর ভিতরে ছিল চাল, আটা, ডাল, তেল, চিনি, লবণ সহ নানা নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী। সে সময় সেনাবাহিনীর পক্ষ হতে ৪৬ লোকেটিং আর্টিলারির ক্যাপ্টেন জায়েদীদের নেতৃত্বে এ ত্রান বিতরণ করা হয়।
বন্যা পরিস্থিতির মাঝে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে তাদের বাড়িতে গিয়ে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ায় দরিদ্র পরিবারগুলোর মাঝেও হাসি ফুটে উঠেছে।
ভবিষ্যতের দিনগুলিতে সেনাবাহিনীর কাছ থেকে এ ধরনের সহায়তা পাওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন তারা।

অন্য খবর  ডা. রোকনের গ্রামবাসী বিস্মিত

Comments

comments