দোহারে হামলা চালিয়ে ঘর ভেঙে জমি দখল

155

দোহার উপজেলার উত্তর জয়পাড়া এলাকায় জয়পাড়া কলেজের পেছনে ওয়াজউদ্দিন কারিকরের বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে ঘর ভেঙে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। সন্ত্রাসীদের হামলায় ওই পরিবারের পাঁচজন আহত হন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবার শুক্রবার থানায় অভিযোগ করেও আইনি সহযোগিতা পাননি বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী ওয়াজউদ্দিন কারিকর।

শুক্রবার ভোরে উপজেলার উত্তর জয়পাড়া চৌধুরীপাড়া এলাকায় ওয়াজউদ্দিন কারিকরের বসতবাড়িতে প্রতিবেশী পান্নু, বুলবুল, মামুন ও রাজ্জাকের নেতৃত্বে ২০-২৫ জনের একটি সন্ত্রাসী দল দেশি অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা ওয়াজউদ্দিনের ঘরে প্রবেশ করে তার ছেলে নজরুল, পুত্রবধূ বীথি আক্তারসহ পরিবারের পাঁচজনকে পিটিয়ে আহত করে। একপর্যায়ে বাড়ির একটি ঘর ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়ে সেখানে কয়েক ঘণ্টায় নতুন স্থাপনা গড়ে তুলে জমি দখল করে নেয় তারা। সন্ত্রাসী হামলার শিকার নজরুল অভিযোগ করে জানান, ঘটনার পর তার পরিবারের লোকজন নিয়ে তিনি থানায় অভিযোগ করতে গেলে পুলিশ তা আমলে না নিয়ে বিষয়টি পরে দেখবে বলে জানায়।

নজরুলের বোনজামাই শহিদুল ইসলাম বলেন, সংবাদ পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। এ সময় শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে আহত অবস্থায় বাড়ির সামনের রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখি। পরে তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাই। ভুক্তভোগী ওয়াজউদ্দিন কারিকর বলেন, দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী আব্দুর রাজ্জাক একটি জাল দলিল তৈরি করে আমার ক্রয়কৃত ৯ শতাংশ জমি দখলের চেষ্টা চালাচ্ছে। এ বিষয়ে দোহার থানা ও সহকারী জজ আদালতে দেওয়ানি মামলা চলমান রয়েছে। তারপরও শুক্রবার ভোরে আব্দুর রাজ্জাক সন্ত্রাসীদের নিয়ে হামলা চালিয়ে তার পরিবারের লোকজনকে পিটিয়ে আহত করে টিন-কাঠের স্থাপনা ভেঙে জমি দখল করে নেয়। এদিকে অভিযুক্ত আব্দুর রাজ্জাকের সঙ্গে তার বাড়িতে দেখা করতে গেলে কাউকে পাওয়া যায়নি। তার মোবাইল ফোনে বারবার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

অন্য খবর  দোহারের ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হবেঃ ঢাকার ডিসি

দোহার থানার ওসি মো. সিরাজুল ইসলাম শেখ বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে জমি দখলদারদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Comments

comments