দোহারে স্বর্ণ ব্যবসায়ী খুন

452
দোহারে স্বর্ণ ব্যবসায়ী খুন

দোহার উপজেলার পূর্ব লটাখোলা এলাকার স্বর্ণ ব্যবসায়ী তপন কর্মকার(৪৫) কে গতকাল মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২ টার দিকে তার নিজ বাড়িতে এক দল মুখোশধরী দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে পালিয়ে যায় । পরে চিকিৎসার জন্য তাকে দোহার উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা নিয়ে যেতে বলেন। তখন তারা দ্রুত তপন কর্মকারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। আজ বুধবার বেলা ১১ টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা ধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে স্বজনরা জানান। তপন ওই এলাকার মৃত গোপাল কর্মকারের ছেলে ও জয়পাড়া বাজারের লক্ষী জুয়েলার্সের মালিক বলে জানাযায়।

নিহতের স্ত্রী লক্ষী কর্মকার বলেন, তপনের হঠাৎ চিৎকারে জেগে উঠি। ঘরের বাহিরে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় স্বামীকে দেখতে পাই। চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসে। রক্তাক্ত অবস্থায় স্বামীকে দেখে অজ্ঞান হয়ে যাই। এরপরের ঘটনা সর্ম্পকে আমি আর কিছু বলতে পারি না।

তপনের বড় ভাই কৃষ্ণ কর্মকার বলেন, মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টার দিকে আমি রাতের খাবার খাচ্ছিলাম। আমার স্ত্রীও আমার সঙ্গে ছিল। অন্যরা যার যার ঘরে ঘুমাচ্ছিল। এসময় মুখোশ ও রেইনকোট পড়া কয়েকজন দুর্বৃত্ত বাড়ির সামনের প্রধান ফটক খুলে ভেতরে প্রবেশ করে। তাদের হাতে রামদা ছিল। আমাদের চিৎকারের শব্দ পেয়ে ঘরে থাকা আমার ছোট ভাই তপন বেরিয়ে এলে তাকে এলোপাতাড়ি কোপাতে শুরু করে দুর্বৃত্তরা। আমার স্ত্রী মনি কর্মকার তার ঘর থেকে বাহিরে বের হলে দুর্বৃত্তরা মনি কর্মকারকে তুলে নিয়ে যায়। সকালে তাকে হাত পা বাধা অবস্থায় উদ্ধার করে এলাকাবাসী।

অন্য খবর  চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের নতুন রূপ দোহার পৌরসভা

দোহার থানার ওসি তদন্ত মো. আরাফাত হোসেন বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। লাশ সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে এবং এ বিষয় মামলা প্রক্রিয়াধীন। অপরাধীদের গ্রেফতার করতে পুলিশ তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে।

Comments

comments