দোহারে সীমিত পরিসরে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

74
দোহারে সীমিত পরিসরে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

জোবায়ের শরিফ, নিউজ৩৯ঃ দেশব্যাপী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে ও সাধারণ মানুষের জনসমাগম ঠেকাতে রাষ্ট্রীয় নির্দেশে দোহার নবাবগঞ্জ উপজেলায় সীমিত পরিসরে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন ক্রস হয়েছে। দোহার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো আলমগীর হোসেন ও পরিষদের উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী কর্মকর্তা আফরোজা আক্তার রিবা ও সহকারী কমিশনার ভূমি জ্যোতি বিকাশ চন্দ্র উপজেলা শহীদ মিনারে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
এ সময়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন বলেন, আজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২৬ মার্চ। বাঙালি জাতির জীবনে অনন্যসাধারণ একটি দিন। সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা জোগায় এ দিনটি। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী স্বাধিকারের দাবিতে জেগে ওঠা নিরীহ বাঙালির ওপর চালিয়েছিল নির্মম হত্যাযজ্ঞ। এরপর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গ্রেপ্তারের আগমুহূর্তে ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করা হয়।স্বাধীনতার ঘোষণা ও মুক্তিযুদ্ধের সূচনার এই সময়টি জাতি নিবিড় আবেগের সঙ্গে স্মরণ করে। কিন্তু এবার এমন এক সময়ে ৪৯তম স্বাধীনতা দিবস সামনে এল, যখন নভেল করোনাভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণের কারণে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে।

এ সময়ে তিনি আরও বলেন,প্রিয় দোহারবাসী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে এবং সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বনের কারণে খেটে খাওয়া মানুষ,দিনমজুর, দিন আনে দিন খায় এমন মানুষগুলো হয়তো আজ অসহায় অবস্থায় দিনাতিপাত করছে। দোহারের সচ্ছল মানুষদের কাছে আমি অনুরোধ করছি আপনার পাশের অসহায় প্রতিবেশীর সাহায্যে এগিয়ে আসুন, সাধ্যমত তাদের খাবার, ঔষধ ও নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র দিয়ে সহযোগীতা করুন।
প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বিদেশ থেকে যেসকল প্রবাসী ভাইয়েরা দেশে এসেছেন তাদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ না করে বুঝিয়ে বলুন। সদ্য বিদেশ ফেরত প্রবাসী ভাইদের সাথে কেউ কোন প্রকার অসৌজন্যমূলক আচরণ না করে বরং তাদের ঘরে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে অনুরোধ করুন।

অন্য খবর  দোহার থানা বিএনপির নতুন সদস্য সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন

এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফরোজা আক্তার,উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভুমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট জ্যোতি বিকাশ,উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডা.জসিম উদ্দিন,দোহার থানা পুলিশের কর্মকর্তাগন।

Comments

comments