দোহারে লকডাউনের প্রথম দিনে প্রশাসনের অভিযান: ১৪ জনকে অর্থদন্ড

106

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ৫-১১ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা দেয় সরকার। তার ধারাবাহিকতায় আজ সকাল থেকে মাঠে নেমেছে দোহার উপজেলা প্রশাসন ও দোহার থানা পুলিশ।

তবে কেউ মানছে না সামাজিক দূরত্ব বা স্বাস্থ্যবিধি। ক্রেতারা যেমন স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না তেমনি মানছেন না দোকানিরা।

এদিকে আজ সকালে দোহারে সীমিত পরিসরে দোকানপাট খোলা ছিল, পরে দোহার উপজেলা প্রশাসন অভিযান পরিচালনা করে দোকান পাঠ বন্ধ করে দেয়।

আজ সোমবার (৫ এপ্রিল) সকাল থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সরেজমিনে এ চিত্র দেখা যায়। একদিকে শুরু হচ্ছে লকডাউন। আবার সামনে আসছে রমজান মাস। এজন্য অনেকেই যেমন কাঁচাবাজারে যাচ্ছেন। অনেকে আবার কিনে রাখছেন নৃত্য প্রয়োজনীয় জিনিস। আবার অনেকেই যাচ্ছে হাসপাতালে।
তবে স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না কেউই। এ বিষয় জনসাধারণকে জিজ্ঞেস করলে তারা স্বাস্থ্যবিধি না মানার বিষয়ে সদুত্তর দিতে পারেননি কেউ।

এসময় অকারণে বাসা থেকে বের হওয়ার দায়ে ১৪ জনকে ৪২০০ টাকা জরিমানা করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জ্যোতি বিকাশ চন্দ্র বলেন, জেলা প্রশাসন থেকে নিয়মিতই অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। লকডাউনের কথা শুনে সাধারণ মানুষ বাইরে বেশি বের হয়েছে। ফলে হাটবাজার ও মার্কেটগুলোতে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতে অভিযান করছি। এবং আমরা আজ সারাদিন মাঠে থাকবো।

অন্য খবর  দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করাই এখন প্রধান লক্ষ; নবাবগঞ্জে গয়েস্বর

Comments

comments