দোহারে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় বিক্ষোভ

68

ঢাকার দোহার উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও মাহমুদপুর হরিচন্ডি জুনিয়র হাই স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং সাবেক শিক্ষক সালাহউদ্দিন রসুকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে মাহমুদপুর এলাকাবাসী।

গত ২৬ মে শনিবার দোহার উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ- সভাপতি সালাহউদ্দিন রসুকে কুপিয়ে জখম করে এলাকার কিছু সন্ত্রাসী ও মাদকসেবী। এ ঘটনায় রসুর বড় বোন আলেয়া আক্তার বাদী হয়ে দোহার থানায় একটি মামলা দায়ের করে। আহত সালাহউদ্দিন রসু এখনো দোহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিলটি উপজেলার মাহমুদপুর হাজামবাড়ির মোড় হতে শুরু হয়ে মাহমুদপুর জুনিয়র হাই স্কুল মাঠে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে এই ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে প্রতিবাদ সভা করেছে মাহমুদপুর এলাকাবাসি। এসময় রসুর হামলাকারীদের আটকের বিষয়ে দোহার থানা পুলিশের উদাসীনতার কথা উল্লেখ করেণ এলাকাবাসী। দ্রুত হামলাকারীদের গ্রেপ্তার না করলে বৃহৎ আন্দোলনের কথা জানান তারা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মাহমুদপুর জুনিয়র হাই স্কুলের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মোশারফ হোসেন পত্তনদার, মনির পত্তনদার, মাহমুদপুর জুনিয়র হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. কামাল হোসেন, মনির পত্তনদার, যুবলীগ নেতা হুমায়ুন কবির, মাহমুদপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক এসএম আক্তার হোসেন, মাসুদ পত্তনদার, সারোয়ার মেম্বার সহ আরো অনেকে।

অন্য খবর  শেষ হয়ে গেলো দোহার বৃক্ষমেলা-২০১৮

Comments

comments