দোহারে ভাইস চেয়ারম্যানের ভাতিজাকে অপহরণের চেষ্টা

238

ঢাকার দোহার উপজেলায় হাফিজুর বেপারী (১৩) নামে এক শিক্ষার্থীকে অপহরণের চেস্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে অপহরণে ব্যর্থ হয়ে শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। রবিবার সকালে উপজেলার সুতারপাড়া ইউনিয়নের দোহার বাজার সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হাফিজুর কাজিরচর গ্রামের গফুর বেপারীর ছেলে এবং দোহার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র। হাফিজুর বেপারী সদ্য নির্বাচিত দোহার উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সুজাহার বেপারির ভাতিজা।

আহত হাফিজুর জানান , সকাল সারে এগারো টার দিকে নিজ বাড়ি মধুরচর থেকে স্কুলে যাওয়ার উদ্যেশ্যে বের হয়। দোহার বাজার পাল বাড়ির সামনে আসলে হটাৎ গেন্জি দিয়ে মুখ ঢাকা অবস্থায় পিছন থেকে কি যেন নাকে শুখানোর চেস্টা করে। পরে তার সাথে অনেক ধস্তাদস্থি হয়। অপহরণের ব্যর্থ হয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হাফিজুরের হাতে আঘাত করে পালিয়ে যায় র্দুবৃত্তরা। স্থানীয়রা আহত হাফিজুরকে উদ্ধার করে দ্রুত দোহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

বাম হাতের রগ কেটে যাওয়ার কারনে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ঢাকায় প্রেরন করতে বলে কর্তব্যরত চিকিৎসক। আহতের পরিবারের দাবি, কোন চাদাঁবাজ বা অপহরন চক্রের কেউ হয়তো এ ঘটনা ঘটাতে পারে।

অন্য খবর  সিরাজদিখানে ফসলি জমিতে খাল খননের প্রতিবাদে মানববন্ধন

হাফিজুরের চাচা দোহার উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সুজাহার বেপারী বলেন, আমার ভাতিজাকে অপহরণের চেস্টা করা হয়েছিল। ব্যর্থ হয়ে তাকে আহত করে পালিয়ে গেছে। আমি এর সুষ্ঠ বিচার চাই এবং এই ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানাই।

দোহার থানার সেকেন্ড অফিসার উপ-পরিদর্শক সৌমেন মিত্র বলেন, খবর পেয়ে সাথে সাথেই পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল। ইতিমধ্যে ঘটনার সাথে জড়িতদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় কোন লিখিত অভিযোগ করেনি হাফিজুরের পরিবার। এদিকে এমন ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে।

Comments

comments