দোহারে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৫

522

নিউজ৩৯; নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দোহার উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের আন্তঃসঙ্ঘর্ষ হয়েছে। এতে পাচ(০৫) জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত একজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। বাকি চারজনকে দোহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরেই দোহার পৌরসভা ছাত্রলীগ সহ-সভাপতি রাশেদুল ইসলাম ও জয়পাড়া কলেজ ছাত্রলীগের নেতা-কর্মিদের মাঝে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছিলো। এরই জের ধরে, গত দুইদিন তাদের মাঝে ধাওয়া পাল্টা হয়। গতকাল এই উত্তেজনায় কলেজে রাশেদের সমর্থকদের সাথে কলেজ ছাত্রলীগের সমর্থকদের হাতাহাতি হয়। বিষয়টি কলেজ সভাপতি পান্নু চোকদার, সেক্রেটারি শান্ত ও পৌর সহ-সভাপতি রাশেদের হস্তক্ষেপে মীমাংসা হয়। এই অবস্থায়, জয়পাড়া কলেজের অধ্যক্ষ সিদ্দিকুর রহমান কলেজে অবৈধ ও বহিরাগতদের অনুপ্রবেশ নিষিদ্ধ করেন।

রবিবার (৩০ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার রতন চত্তর এলাকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বরনে ৪৫ তম শাহাদাৎ উপলক্ষে এক শোকর্যােলী বের করে ছাত্রলীগের সাধারণ নেতা-কর্মী ব্যানারে বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মি। এসময় র্যালী শেষে ফেরার পথে জয়পাড়া কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মিদের সাথে পৌরসভা ছাত্রলীগের কিছু নেতা-কর্মিদের বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে তীব্র সংঘর্ষ বেঁধে যায়।

অন্য খবর  ঢাকা জেলা যুবদলের আবু আশফাকের বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জ্ঞাপন

এতে দুই পক্ষের হামলা পাল্টা হামলায় পাচজন আহত হওয়ার ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন রাজ (১৮), আবির (১৮), রাকিব, খোকন। গুরুতর আহত কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রাব্বিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

নিউজ৩৯কে আবির জানান, হটাত কে বা কারা তাকে আঘাত করে। তিনি এসময় কাউকে চিনতে পারেননি।

সংঘর্ষের সময় উভয়পক্ষকে থামাতে গিয়ে আহত হন দোহার উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক রাহিম কমিশনার, কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সেক্রেটারি আব্দুর রহমান শান্ত এবং পৌরসভা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রাশেদুল ইসলাম। এসময় কিছু কর্মি-সমর্থক দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে শো ডাউন করে রতন চত্তর থেকে কলেজ মোড় পর্যন্ত।

তাৎক্ষণিক দোহার থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে জয়পাড়া কলেজ কতৃপক্ষ ও পুলিশ প্রশাসন যৌথভাবে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে।

দোহার থানা পুলিশের ওসি(তদন্ত) আরাফাত হোসেন নিউজ৩৯কে বলেন, এখনো কোন লিখিত অভিযোগ হয়নি;অভিযোগ করা হলে আমরা আইননুযায়ী ব্যবস্থা নিবো।
বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, বিষয়টি সুরাহার জন্য দোহার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন অবগত হয়েছেন।

Comments

comments