দোহারে গান্ধীজি আশ্রম পরিদর্শনে আসছেন ভারতীয় হাই কমিশনারঃ ডিআইজি’র পরিদর্শন

339
দোহারের মহাত্মা গান্ধীর সৃতি যথাযথ সংরক্ষণ করা হবেঃ ডিআইজি হাবিবুর রহমান

দোহার উপজেলার সুতারপাড়া ইউনিয়নের মধুরচর এলাকায় অবস্থিত গান্ধীজী আশ্রম। ভারতের জাতির জনক মোহন দাস করমচাঁদ গান্ধী ওরফে মহাত্মা গান্ধী দোহারের এই আশ্রম পরিদর্শন করেছিলেন। সেই থেকে এটি মহাত্মা গান্ধী আশ্রম। স্থানীয়দের কাছে মেঘুলা – মালিকান্দা শ্মশান ঘাট৷ সেই আশ্রমের রয়েছে চার একর জমি। আর অনেক দিন ধরেই এই জমি পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে।
সাম্প্রতিক সময়ে এই আশ্রম পরিদর্শনের কথা রয়েছে বাংলাদেশস্থ ভারতীয় হাই কমিশনারের।
তাই এই পরিত্যক্ত জমি পরিদর্শন করেন বাংলাদেশ পুলিশ ঢাকা রেঞ্জর ডিআইজি মোঃ হাবিবুর রহমান ও ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মারুফ সরদার। এই সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ। শুক্রবার বিকাল ৫ঃ৩০ টার দিকে, তারা সকলে এই পরিত্যক্ত জমি পরিদর্শন করেন।

ডিআইজি মোঃ হাবিবুর রহমান নিউজ৩৯ কে বলেন, আগামী ২৩ তারিখে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামল ও ভারতের হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী পরিদর্শন করবেন। তাই আশ্রমের সার্বিক অবস্থা দেখার জন্য আমরা এখানে এসেছি। আমি মনে করি এখানে যে মহাত্মা গান্ধীর স্মৃতি রয়েছে সেটা সরকারিভাবে যথাযথ সংরক্ষণ করা হবে।
মহাত্মা গান্ধী আশ্রমের পরিদর্শনের সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী সেচ্ছাসেবীলীগের সভাপতি বাবু নির্মল রঞ্জুর গুহ। নিউজ৩৯ কে দেয়া সাক্ষাৎকারে নির্মল গুহ বলেন, এই আশ্রম জাতীয় সম্পদ। মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতের যে ভূমিকা তার জন্য আমরা কৃতজ্ঞ। সেই দেশের একজন হাই কমিশনার দোহারে আসবেন, সেটা আমাদের জন্য আনন্দের। দোহারে তার আগমনের মধ্য দিয়ে দুদেশের সম্পর্ক আরো গভীর হবে বলে বিশ্বাস করি।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সহ- সভাপতি ফজলুল হক, দোহার থানা ওসি মোস্তফা কামাল, নবাবগঞ্জ থানার ওসি শেখ সিরাজুল ইসলাম পিপিএম, নারিশ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন দরানীসহ প্রমূখ।

অন্য খবর  দেয়ার সুযোগ এসেছে, দিয়েই যাব: মাহবুবুর রহমান

Comments

comments