দুর্ভোগের নাম নবাবগঞ্জ শোল্লা দৌলতপুর সড়ক

439
নবাবগঞ্জ-শোল্লা সড়ক

দুর্ভোগের নাম নবাবগঞ্জ-শোল্লা- পাড়াগ্রাম-দৌলতপুর ভায়া ঢাকা সড়ক। সর্বত্রই খানাখন্দ আর গর্ত। কয়েক দফা টানা বর্ষণে এগুলো আরও বড় আকার ধারণ করেছে। কোথাও কোথাও পানি জমে খালে রূপ নিয়েছে। ফলে এ সড়কে যাতায়াতে যাত্রীসাধারণকে চরম কষ্ট ভোগ করতে হচ্ছে।

৬ মাস আগে সড়কটি সংস্কার করা হয়। কিন্তু নিম্নমানের কাজ ও বৃষ্টিসহ নানা কারণে সেই পুরনো চেহারায় ফিরেছে সড়কটি। সরেজমিন দেখা যায়, সড়কটির ইটের খোয়া উঠে গেছে। বিভিন্ন স্থানে সৃষ্ট গর্তগুলোতে বৃষ্টির পানি জমে আছে। কোথাও কোথাও কাদা। ফলে আটকে যাচ্ছে গাড়ি। দৌলতপুরের বাসিন্দা মো. কামরুল বলেন, কয়েক বছর ধরেই সড়কটি খানাখন্দ ও গর্তে পরিণত হয়ে আছে। ভাঙা সড়কে ঝাঁকুনিতে রোগীকে আরও অসুস্থ করে তোলে।

পাড়াগ্রাম এলাকার অধিবাসী মো. সালাম মিয়া বলেন, সড়কের যে অবস্থা তাতে দ্রুতগতিতে গাড়ি চালানো যায় না। ধীরে গাড়ি চালাতে হয়। এতে শুধু যাত্রীদের যাতায়াতেই কষ্ট হচ্ছে না, রাতে ডাকাতির কবলে পড়ে সব হারাতে হচ্ছে অনেককে।

স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দার অভিযোগ, ঠিকাদার লোক দেখানো কাজ করে বিল তুলে নিয়েছে। এ কারণেই সড়কের এ অবস্থা।

জানতে চাইলে নবাবগঞ্জ উপজেলার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের প্রকৌশলী মো. শাজাহান বলেন, সড়কের অবস্থা খারাপ। তবে সংস্কারের ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

অন্য খবর  আবার সুযোগ পেলে ঢাকা-১ হবে বাংলাদেশের মডেল উপজেলা – মান্নান খান

Comments

comments