দীপ্ত টিভির এমডিসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

1118
দীপ্ত টিভির এমডিসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি ও তার ছেলে সানোয়ারা গ্রুপ অব কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে মানহানিকর প্রতিবেদন প্রচার করার অভিযোগে বেসরকারি টিভি চ্যানেল ‘দীপ্ত টেলিভিশন’র এমডিসহ সাত জনের বিরুদ্ধে দুটি পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে।
রোববার (৩ এপ্রিল) গভীর রাতে মন্ত্রীর প্রতিষ্ঠান সানোয়ারা গ্রুপের ভূমি ব্যবস্থাপক শেখ আহম্মেদ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। সানোয়ারা পোল্ট্রি ও হ্যাচারির ব্যবস্থাপক জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে গত ৩০ মার্চ অপর একটি মামলা করেছিলেন। একটি মামলা চট্টগ্রামের চকবাজার থানায় এবং অপরটি মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দায়ের করা হয়েছে বলে মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা বাংলামেইলকে নিশ্চিত করেন।
দুই মামলার আসামিরা হলেন- দীপ্ত টিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী জাহেদুল হাসান, পরিচালক কাজী জাহিন হাসান, কাজী রাবেদ হাসান, চিফ অপারেটিং অফিসার কাজী উরফি আহমেদ, বার্তা সম্পাদক নাজমুল আশরাফ, চট্টগ্রাম অফিসের প্রতিবেদক লুনা আনসারী এবং জমির মালিক পরিচয়দানকারী আবু বকর।
মামলার বাদী জাহাঙ্গীর আলমের বরাত দিয়ে জনসংযোগ কর্মকর্তা জানান‍, চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার দোহাজারীর লালুটিয়া এলাকায় সানোয়ারা গ্রুপের মালিকানাধীন বিপুল পরিমাণ জায়গা দখলে মরিয়া হয়ে উঠেছে কাজী ফার্মের মালিক কাজী জাহেদুল হাসান। ১১৫ একর জমি কিনে কাজী গ্রুপ নামের প্রতিষ্ঠানটি এরই মধ্যে দখল করে নিয়েছে ৩২০ একর জমি।
সানোয়ারা গ্রুপ কর্তৃপক্ষ তাদের নিজস্ব জায়গায় যেন যেতে না পারে, সেজন্য কাজী গ্রুপের মালিক কাজী জাহেদুল হাসানের নিজস্ব মিডিয়া দীপ্ত টিভি ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউন এসব তথ্যের অপ্রচার চালায়। মূলত বাকি জায়গাগুলো জোরপূর্বক লাঠিয়াল বাহিনী দিয়ে দখলে নিতে কাজী ফার্মের পক্ষ থেকে মন্ত্রীপুত্র মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে কুৎসা রটনা করছে। তার ইমেজ ক্ষুণ্ন করার পাঁয়তারা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজনের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। তারা কাজী ফার্মের মালিক কাজী জাহেদুল হাসান এর এহেন দখলবাজি বন্ধে প্রশাসন ও সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
ওই কর্মকর্তা আরো জানান, সাবেক ঠাকুরগাঁও এর ডিসি ও বর্তমান ওএসডি বিএনপিপন্থি আমলা মাকসুমুল হাকিমের মধ্যস্ততায় কাজী ফার্মের কাজী জাহেদুল হাসান তার দুই পুত্রের নামে সানোয়ারা গ্রুপের কাছ থেকে চন্দনাইশের লালুটিয়ায় ৩২০ একর জায়গা কিনতে চুক্তিবদ্ধ হয়। কিন্তু ১১৫ একরের মতো জমি তারা রেজিস্ট্রি করে নেয়। এরপর পুরো মূল্য পরিশোধ না করে কাজী ফার্ম ৩২০ একর জায়গাজুড়ে লাঠিয়াল বাহিনী বসিয়েছে।
বর্তমান ওএসডি বিএনপিপন্থি আমলা মাকসুমুল হাকিম ২০০৪ সালে ঠাকুরগাঁও এর ডিসি থাকা অবস্থায় কাজী ফার্মকে প্রচুর সরকারি জায়গা অবৈধভাবে লিজ দেন। সানোয়ারা গ্রুপের যেসব স্থাপনা বিক্রি করা হয়নি তাও কাজী গ্রুপ দখল করে রেখেছে। এর বাইরে সানোয়ারা গ্রুপের যেসব জায়গা রয়েছে সেসব জায়গাও দখলে নিতে প্রতিনিয়ত কাজী ফার্মের লাঠিয়াল বাহিনী অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তাই দীপ্ত টিভিতে ধারাবাহিকভাবে উদ্দেশ্যমূলক ও মানহানিকর প্রতিবেদন প্রচারের অভিযোগেই বেসরকারি টিভিটির মালিক ও সাংবাদিকসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

অন্য খবর  জেলেই যাচ্ছেন আশ্রয়প্রার্থী বাংলাদেশী মা

Comments

comments