দলের ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন করলেই জাতির জনকের আত্মা শান্তি পাবে – নির্মল রঞ্জন গুহ্

83

১৫-ই আগস্ট, বৃহস্পতিবার আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ বলেছেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ১৯৭৫ সালের আজকের এই দিনে নীল নকশার মাধ্যমে নির্মমভাবে হত্যা করে তাঁর আজীবনের লালিত স্বপ্নকে নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিল ঘাতকরা, তাদের সেই স্বপ্ন বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রি শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারনে ধুলিস্যাৎ হয়ে গেছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তাবায়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে সহযোগিতা করতে হবে সবাইকে।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার পর থেকেই নয়াবাড়ি ইউনিয়ন- আওয়ামী লীগের উর্বর ভূমি হিসেবে পরিচিত। যে কোন নির্বাচনে দোহারের অন্যান্য স্থানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ভাল করতে না পারলেও নয়াবাড়িতে সব সময়ই আওয়মী লীগ বিজয়ী হয়েছে। আজকে আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাদের বাইরে রেখে হাইব্রিড নেতারা চেয়ার দখল করে আছে, যা আওয়ামীলীগের রাজনীতির জন্য অশুভ লক্ষণ।যারা স্বৈরাচারী বিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে, প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে খুব কাছ থেকে রাজনীতি করেছেন আজ তারা কোন অনুষ্ঠানে দাওয়াত পায় না। আজকে খুব কষ্ট লাগে যখন দেখি একাধিক দল করে আসা নেতারা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিচ্ছে। আমার নেত্রী প্রধানমন্ত্রী যখন যা আদেশ করছেন, তার ইচ্ছা অনুযায়ী রাজনীতির কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছি। ছাত্র রাজনীতি থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত দলের সাথে কোন বেঈমানি করি নাই। যে কারনে প্রধানমন্ত্রীর আস্থাভাজন কর্মী হিসেবে রাজনীতি করছি। কাউকে ভয় করি না। রাজনীতিতে কোন চাওয়া পাওয়াও নেই। যে কারণে হাজার হাজার নেতাকর্মীর ভালবাসা নিয়ে রাজনীতি করছি ।

অন্য খবর  শ্রীনগরে মাহী বি চৌধুরীর উঠোন বৈঠক

নয়াবাড়ি ইউনিয়নের জনগনের দাবি ছিল পদ্মার ভাঙ্গন থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য – পদ্মায় বাধ নির্মাণের। বর্তমানে দোহার-নবাবগঞ্জ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদ্বেষ্টা  সালমান এফ রহমান বাঁধ নির্মাণ করে দিয়ে দোহারবাসীকে নদী ভাঙন থেকে রক্ষা করেছেন। মৈনটেও ভাঙন প্রতিরোধের কাজ চলছে। এলাকার উন্নয়নে আগে থেকেই তার পরিকল্পনা ছিল। বর্তমানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছেন এমপি সালমান এফ রহমান। তিনি যদি ইচ্ছা করেন তাহলে অনেক কিছুই সম্ভব। তবে দলের নেতা-কর্মিদের তার কাছে গিয়ে এলাকার সমস্যার কথা জানাতে হবে। গত বৃহস্পতিবার নয়াবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী আব্দুর রশিদের সভাপতিত্বে, প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শোক দিবস উপলক্ষে নয়াবাড়ি ইউনিয়নের ১০টি স্পটে দোয়া মাহফিল ও গণভাজের আয়োজন করা হয়। উক্ত দোয়া মাহফিল ও ভোজ সভায় দোহার উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোল্লা হাবিবুর রহমান, নয়াবাড়ি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শামীম মোহাম্মদ হান্নান সহ স্থানীয় নেতা-কর্মিরা উপস্থিত ছিলেন।

অন্য খবর  দোহার নবাবগঞ্জে কালবৈশাখীর সঙ্গে প্রবল বর্ষণ

এছাড়া শোকদিবসের আলোচনা অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক শেখ শাখাওয়াৎ হোসেন নান্নু , দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক হাসান মতিউর রহমান, নয়াবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শহীদ খান, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা সেকান্দার আলী মোল্লা, নয়াবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তৈয়বুর রহমান তরুন, নয়াবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোহরাব তালুকদার, ইস্রাফিল কাজল, দোহার উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান অনল,  ঢাকা জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সহ-সভাপতি শশাঙ্ক পাল চৌধুরী, ঢাকা জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সহ-সভাপতি আশরাফ আলী, ঢাকা জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ গ্রন্থ ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ আরিফ, ঢাকা জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ পাঠাগার সম্পাদক অমল মজুমদার, দোহার উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সহ-সভাপতি মোঃ লুতফর রহমান, দোহার উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সাংগাঠনিক সম্পাদক বাপ্পী শেখ, শ্রমিক নেতা কুদ্দুস, দোহার উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান জনি, মাহবুব, ফাহাদ, মোঃ জাহাঙ্গীরসহ অন্যান্য নেতা-কর্মিবৃন্দ।

Comments

comments