ঢাকা জেলা যুবদলের আবু আশফাকের বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জ্ঞাপন

67

ঢাকা জেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়কের স্বাক্ষরিত প্রতিবাদ লিপিতে ৭/১১/২০১৭ তারিখে নিউজ৩৯ এ প্রকাশিত সাক্ষাৎকারের প্রতিবাদ করেছে ঢাকা জেলা যুবদল। প্রতিবাদ লিপিতে বলা হয়, খন্দকার আবু আশফাক জাতীয় নেতৃবৃন্দ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ সম্পর্কে যে অশালীন মন্তব্য করেছেন তা ভিত্তিহীন, বানোয়াট ও ষড়যন্ত্রমূলক। তারা অভিযোগ করে বলেন, ৯০এর স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে আবু আশফাক সশস্ত্র হামলা করেছিলেন। তারা প্রতিবাদ লিপিতে আরও  বলেন, তার বিশ্বাসঘাতকতা ও বৈঈমানীর জন্য তিনি দল থেকে বহিষ্কৃত। এখনো কোন লিখিত প্রত্যাহার আদেশ তিনি পাননি।

ঢাকা জেলা যুবদল অভিযোগ করে বলেন, সরকারের সাথে আতাতের কারণে তার বিরুদ্ধে কোন মামলা হয়নি।তিনি ব্যবসায়িকভাবে আওয়ামীলীগ সরকারের সাথে সুসম্পর্ক রেখে চলছেন বলে অভিযোগ করা হয়। এছাড়া  একই সাথে তারা ঢাকা জেলা বিএনপি থেকে তাকে প্রত্যাহারের আহবান জানান।

আবু আশফাকের বক্তব্যঃ

এই ব্যাপারে নিউজ৩৯ এর পক্ষ থেকে আবু আশফাক প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি ১২নভেম্বর রবিবার বিএনপি’র সমাবেশের প্রস্তুতিতে ব্যাস্ত রয়েছে বলে জানিয়ে বলেন, ’৯০ এর গণ অভ্যুত্থানে আমার ভূমিকা কি তা দেশনেত্রি জানেন। ঢাকা জেলা বিএনপি’তে আমার সক্রিয়তা কি, তা বিবেচনা করেই আমাকে ঢাকা জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে।

অন্য খবর  পনের কোটি টাকা নিয়ে নবাবগঞ্জের আল-আকসা উধাও

তিনি আরও বলেন,  আমার ব্যাপারে কোন অভিযোগ বিএনপি থেকে আসেনি। কোন অংগসংগঠন-তো অভিযোগ করতে পারে না। নিজেরা আহবায়ক কমিটি করে, বিভিন্ন উপজেলায় আহবায়ক কমিটি করে তারা কিভাবে গণতন্ত্র ও দলের কথা বলে। তিনি বলেন, আমি দুই দুই বার আওয়ামীলীগ আমলে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি , এটা ম্যাডাম ও আমাদের নেতা তারেক রহমান জানেন ।

বিস্তারিত কথা পরে হবে বলে তিনি ফোনালাপ থেকে বিদায় নেন।

নিউজ৩৯ এর বক্তব্যঃ প্রতিবেদন করেছিলেন নিউজ৩৯ এর সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার আছিফুর রহমান সজল। নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আবু আশফাকের বক্তব্য যেমন নিউজ৩৯ তার রেকর্ড থেকে প্রকাশ করেছে, একই ভাবে প্রেস রিলিজ পেয়ে ঢাকা জেলা যুবদলের বক্তব্য ছেপেছে। নিউজ৩৯ যা দেখে , পাঠকের স্বার্থে তাই ই ছাপে।

Comments

comments