ঢাকা জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি

126
বিজ্ঞাপন

রোববার দুপুর ১২টার দিকে পুরান ঢাকায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা বাতিল ও কারামুক্তির দাবিতে স্মারকলিপি জমা দেন ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি ডা. দেওয়ান সালাউদ্দিন বাবুর নেতৃত্বে দলের নেতাকর্মীরা। এ সময় ঢাকা জেলা প্রশাসক মো. সালাহউদ্দিন বিএনপির স্মারকলিপি গ্রহণ করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার জিয়াউর রহমান খান, ঢাকা বিভাগ বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, শহিদুল ইসলাম বাবুল, ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা রেজাউল কবির পল, অ্যাডভোকেট আবু বক্কর সিদ্দিক কাউসার, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক ভিপি নাজিম, ওয়ালিদ খান, ফজলুল হক বেলায়েতী, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হাজি মাসুম, সাবিনা ইয়াসমিন, সাবেরা বেগমসহ ঢাকা জেলা বিএনপি যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনের সড়কে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ করেন উপস্থিত নেতাকর্মীরা। খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে শনিবার থেকে শুরু হওয়া তিন দিনের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির দ্বিতীয় দিনে স্মারকলিপি দিল বিএনপি।

এর আগে শনিবার খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে গণস্বাক্ষর সংগ্রহ করা হয়। এ ছাড়া আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মহানগরী ছাড়াও জেলা-মহানগরে বিক্ষোভ সমাবেশ করবে বিএনপি।

এর পর ২২ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় সোহরাওয়ার্দী বা নয়াপল্টনের কার্যালয়ের সামনে জনসভা করবে দলটি। এ জন্য ঢাকা মহানগর পুলিশের কাছে আবেদন করা হয়েছে। গত ৮ ফেব্রুয়ারি পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার পর পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়া হয় বিএনপি চেয়ারপারান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে।

এর পর থেকেই খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসেছে বিএনপি। রায়ের প্রতিবাদে ৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকাসহ সারা দেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন দলের নেতাকর্মীরা। ১০ ফেব্রুয়ারি থানা, উপজেলা, জেলা মহানগরে প্রতিবাদ সমাবেশ, ১২ ফেব্রুয়ারি মানববন্ধন, ১৩ ফেব্রুয়ারি অবস্থান কর্মসূচি ও ১৪ ফেব্রুয়ারি অনশন কর্মসূচি পালন করে বিএনপি।

পাশাপাশি বিদেশি কূটনৈতিক, ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধি, পেশাজীবী, আইনজীবী ২০-দলীয় জোটসহ দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন দলের জ্যৈষ্ঠ নেতারা।

Comments

comments