ঢাকা জেলায় শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী সাকিল আহমেদ

760
ঢাকা জেলায় শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী সাকিল আহমেদ

উপজেলার গন্ডি পেরিয়ে ঢাকা জেলায় শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়ে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখলেন পদ্মা কলেজ রোভার স্কাউট গ্রুপের আর এম সাকিল আহমেদ। দোহার উপজেলার মুকসুদপুর গ্রামের ছেলে সাকিল আহমেদ। মুকসুদপুর শামসুদ্দিন শিকদার উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক শেষ করে পদ্মা কলেজে থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হয়ে এখন অনার্স সম্মান শ্রেনীর হিসাববিজ্ঞান বিভাগে অধ্যায়নরত আছেন। তার স্কুল জীবন শেষ করে নিজের পড়ালেখার খরচ নিজেই চালাচ্ছেন।

তার অনুভূতি সম্পর্কে জানতে চাইলে নিউজ থার্টিনাইন-কে বলেন, “আমার এ কৃতিত্ব আমার নয়, আমার কলেজের শিক্ষকগনই এ কৃতিত্বের ভাগিদার, তাদের অনুপ্রেরণাই আমার এ অর্জনের মূল কারণ, পাশাপাশি আমার শ্রদ্ধেয় রোভার শিক্ষক ইমদাদুল হক চাঁন স্যার সব সময় আমাকে যে কোন বিষয়ে পরামর্শ দিয়ে সহযোগিতা করেছেন।“

পদ্মা কলেজের অধ্যক্ষের কাছে ব্যপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সাকিল এর নাম আমরা উপজেলায় প্রেরণ করি শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী কোঠায় কারণ তার একাডেমীক ফলাফলের পাশাপাশি রোভার স্কাউটিং ও অন্যান্য কাজে সে ভাল। আমার মনে হয়েছে সে ভাল করবে এবং সে উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী নির্বাচিত হয়।

অন্য খবর  পদ্মা কলেজের ছাত্র নিখোঁজ

সাকিল যে জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ হয়েছে এখবর আমাকে সর্বপ্রথম মাধ্যমিক শিক্ষা-কর্মকর্তা লিয়াকত আলি সাহেব দিয়েছেন, এর জন্য আমি খুবি খুশি। কারণ এটা আমাদের জন্য অহংকারের ব্যাপার, গর্বের ব্যপার, আমি চাই সে সামনে আরও ভাল করুক, তার জন্য আমাদের এই দোয়া থাকবে। ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হওয়ার পরে পদ্মা কলেজের এত্য বড় সাফল্য অর্জনে তার ব্যক্তিগত অনুভূতি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি আরও বলেন, এইটাতে আমার কোন সাফল্য বা কৃতিত্ব নেই তবে, সিলেকশন এর ব্যপারে আমি শুধু একাডেমী রেজাল্ট এর উপরে গুরুত্ব না দিয়ে এক্সট্রা কারিকুলাম এর উপর গুরুত্ব দিয়েছি, কেকনা এর আগেও আমাদের কলেজের শিক্ষার্থীদের নাম দেওয়া হয়েছে একাডেমীক রেজাল্ট দেখে তাতে তেমন ফলাফল আসেনি, তাই সাকিলের নাম দিয়েছি কারণ রেজাল্ট এর পাশাপাশি অন্যান্য কাজেও ভাল তাই তার নাম দিয়েছি।

Comments

comments