ঢাকার কেরানীগঞ্জে ব্যাডমিন্টন খেলাকে কেন্দ্র করে গ্রাম্য বিচারকের লাঠির আঘাতে এক যুবক নিহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে । নিহত যুবকের নাম মোঃ রাতুল হোসেন। তার বাবার নাম মোঃ কাবুল হোসেন। তারবাড়ি হযরতপুর ইউনিয়নের মানিক নগর এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে তার এলাকায়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুইদিন পর গত শনিবার দুপুরে রাতুল হোসেন মারা যায়। খবর পেয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার হযরতপুর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মোঃ আনোয়ার হোসেন নিহতের লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠান। কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের হোসেন জানান , গত মঙ্গলবার রাতে মানিক নগর এলাকায় নিহত রাতুল হোসেন তার সংঙ্গী সাথীদের সাথে ব্যাডমিন্টন খেলছিল। এসময় অজ্ঞাত এক যুবক মদ পান করে তাদেরকে খারাপ ভাষায় গালাগালি করলে ওই ব্যক্তির সাথে তাদের কথা কাটাকাটি হয়। ঔ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত বুধবার সন্ধ্যায় মানিক নগর এলাকায় একটি ক্লাবে গ্রাম্য শালিস বসে। এসময় মোঃ শাহ আলম শাহা(৫০) নামে এক ব্যক্তি শালিস চলাকালীন সময়ে একটি লাঠি দিয়ে রাতুল হোসেনকে এলোপাথারীভাবে পিটাতে থাকে। এতে তার মাথায় একাধিক আঘাত লাগলে সে গুরুতর আহত হয়। বৃহস্পতিবার সকালে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার দুপুরে মারা যায়। এই ব্যাপারে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় শাহ আলম শাহাকে প্রধান আসামী কের একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

অন্য খবর  কেরানীগঞ্জে বিয়েবাড়িতে মদ্যপানে ২ জনের মৃত্যু

Comments

comments