জার্মানিতে শিশুদের জন্য স্মার্ট ঘড়ি নিষিদ্ধ

63

গুপ্তচরযন্ত্র হিসেবে আখ্যায়িত করে শিশুদের জন্য স্মার্ট ঘড়ি বিক্রি নিষিদ্ধ করেছে জার্মান নিয়ন্ত্রণ সংস্থা। টেলিকম নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফেডারেল নেটওয়ার্ক এজেন্সি এ ধরনের ঘড়ি ধ্বংস করে ফেলতে পরিবারগুলোকে আহ্বান জানিয়েছে।

সংস্থার একজন বিশেষজ্ঞ বলেছেন, ইন্টারনেটে সংযুক্ত যন্ত্রের জন্য সিদ্ধান্তটি একটা গেম চেঞ্জার হিসেবে কাজ করবে।

পেন টেস্ট পার্টনারের বিশেষজ্ঞ কেন মানরো বলেন, অরক্ষিত স্মার্ট ডিভাইসগুলো প্রায়ই আক্রমণের শিকার হয়। এটা আরও উদ্বেগের যখন শিশুদের নিরাপত্তা থাকে না। তিনি আরও বলেন, শিশুদের নিরাপত্তার জন্য এই ঘড়ির উৎপাদন ও বিক্রি নিষিদ্ধ করা একটা উপযোগী সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এই ঘড়ির সঙ্গে যুক্ত বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। সংস্থাটি স্কুলে শিক্ষকদেরও এ বিষয়ে কড়া নজর রাখতে বলেন।

জার্মানিতে ৫-১২ বছরের শিশুদের এই ঘড়ির চাহিদা ব্যাপক হারে বেড়েছে। একটি অ্যাপের মাধ্যমে সিমকার্ডের সুবিধা ছাড়াও টেলিফোনের বেশকিছু  কাজ এই ঘড়িতে করা যায়।

নরওয়েজিয়ান কনজিউমার কাউন্সিলের প্রধান ফিন মার্সটেড বলেন, উৎপাদনকারীদের সতর্ক করা এবং শিশুদের নিরাপত্তার জন্য নিষিদ্ধের বিষয়টি ইতিবাচক।

তিনি ইউরোপকে এ বিষয়ে নিরাপত্তা জোরদার করতে আহবান জানান।

অন্য খবর  ফেসবুক উন্মুক্ত করল স্টোরিজ ফিচার

Comments

comments