গাজীপুরে আঞ্চলিক রোভারমুট অনুষ্ঠিত

109
গাজীপুরে আঞ্চলিক রোভারমুট অনুষ্ঠিত
বিজ্ঞাপন

“শতবর্ষে রোভারিং, সুনাগরিক প্রতিদিন” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বাংলাদেশ স্কাউটস রোভার অঞ্চলের ব্যবস্থাপনায় গত ২৬-৩১ডিসেম্বর ২০১৭ইং পর্যন্ত গাজীপুরের বাহাদুরপুর রোভার স্কাউট প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল অষ্টাদশ আঞ্চলিক রোভার মুট । সারাদেশ থেকে প্রায় ৮০০০ রোভার, কর্মকর্তা ও সেচ্ছাসেবক মুটে অংশগ্রহন করেন। এছাড়াও বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিগন অংশগ্রহন করেন। উক্ত মুটকে আনন্দদায়ক করার লক্ষে ১৪টি চ্যালেঞ্জ সৃষ্টি করা হয়েছিল । এ লক্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলরকে সভাপতি এবং রোভার অঞ্চলের সম্পাদককে সদস্য সচিব করে সাংগঠনিক কমিটি গঠন করা হয়েছিল । এসময় সদস্য সচিব বলেন,আমরা এই মুটটিকে সকলের কাছে স্মরণীয় করে রাখার জন্য চেষ্টা করেছি।

গাজীপুরে আঞ্চলিক রোভারমুট অনুষ্ঠিত

উক্ত মুটে ঢাকা-১ আসন থেকে তিনটি দল অংশগ্রহণ করেন তাদের মধ্যে নবাবগঞ্জ থেকে “দোহার-নবাবগঞ্জ কলেজ” দোহার থেকে “পদ্মা কলেজ” এবং মহাকবি কায়কোবাদ নামে একটি মুক্ত দল অংশগ্রহণ করেন। অংশগ্রহণকারী দলের  আর.এস.এল স্যারদের সাথে নিউজ৩৯ কথা বললে  দোহার-নবাবগঞ্জ এর আর.এস.এল. স্যার বলেন, শিক্ষার্থীদের আত্মনির্ভরশীল করার একটি অন্যতম উপায় হচ্ছে স্কাউটিং। স্কাউটরা সব সময় সাধারণ ছাত্রদের থেকে পৃথক। মুটের মাধ্যমে স্কাউটদের আত্মনির্ভরশীল হওয়ার স্বপ্ন আরো দৃঢ় হয়।

অন্য খবর  উচ্চ মাধ্যমিকে কতখানি সাফল্য পেয়েছে দোহারের কলেজগুলো?

মুটে স্কাউটরা তাদের রান্না, গোছানো থেকে শুরু করে যাবতীয় সব কাজ নিজেরাই করার পাশাপাশি বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে সামনের এগিয়ে যায়।

অষ্টাদশ আঞ্চলিক মুটের সার্বিক দিক সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, সুষ্ঠুভাবেই সম্পূর্ণ হয়েছে এই মুট। চ্যালেঞ্জ গুলোও ছিল চমৎকার ও আকর্ষণীয়।  তবে মুটের ইউটিলিটি ব্যবস্থা আরো উন্নত হওয়া উচিৎ ছিল। যেহেতু স্কাউটরা সদা প্রস্তুত তাই তারা সব পরিস্থিতির সাথে মানিয়ে নিতে পারে। এখানেও তার ব্যত্যয় ঘটে নি।

Comments

comments