ক্লাব বিশ্বকাপেও হ্যাটট্রিক রিয়ালের

37
রিয়াল মাদ্রিদ

চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার হ্যাটট্রিকটা হয়েছে এই বছর। ক্লাব বিশ্বকাপের হ্যাটট্রিকই বা বাকি থাকবে কেন? আবু ধাবির ক্লাব আল আইনকে ফাইনালে ৪-১ গোলে উড়িয়ে বড়দিনের আগাম উদযাপন করে ফেলল রিয়াল মাদ্রিদ।

ম্যাচের ফল নিয়ে আসলে সেই অর্থে কোনো সংশয় ছিল না শুরু থেকেই। স্কোরলাইন যেমন বলেছে, ম্যাচটাও হয়েছে অনেকটা একতরফাই। পুরো ম্যাচে রিয়ালের গোলে মাত্র চারটি শট নিতে পেরেছে আল আইন, অন্যদিকে রিয়ালের ২৪টি শটের মধ্যে গোলে ছিল নয়টি। বেনজেমারা সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে রিয়ালের জয়টা হতো আরও বড় ব্যবধানের।

ম্যাচের শুরুতে অবশ্য এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল আল আইনই। কারভাহালের ভুল থেকে হুসেইন এল শাত গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন, কিন্তু লাইন থেকে তা ফিরিয়ে দেন রামোস। ১৪ মিনিটে রিয়ালই বরং এগিয়ে যায়। বক্সের কিনারা থেকে বাঁ পায়ের বাঁক খাওয়ানো এক শটে গোল করে এগিয়ে দেন মদ্রিচ। মাদ্রিদে নিজের ১৪টি গোলের মধ্যে ১২টিই হয়েছে বক্সের বাইরে থেকে।

প্রথমার্ধে এগিয়ে যাওয়ার আরও সুযোগ পেলেও তা কাজে লাগাতে পারেননি বেনজেমারা। ৫৯ মিনিটে মার্কোস লরেন্তের দুর্দান্ত এক গোলে আবারও এগিয়ে যায় রিয়াল। কর্নার থেকে পাওয়া বলটা ২৫ গজ দূরে পেয়েছিলেন, বুলেট গতির হাফ ভলিতে করা শট জড়িয়ে যায় জালে। ৭৯ মিনিটে তৃতীয় গোল পেয়ে যায় রিয়াল। এবার মদ্রিচের কর্নার থেকে হেডে গোল করেন রামোস। ৮৬ মিনিটে সুকাসা শিওতানির গোলে ব্যবধান কমায় আল আইন। কিন্তু ভিনিসিয়াস জুনিয়র বদলি হিসেবে নেমে আইনের জালে ঠুকে দেন শেষ পেরেক। বক্সের ভেতর দারুণ ড্রিবলিংয়ে ঢুকে পড়েছিলেন ভিনিসিয়াস, সেটা ক্লিয়ার করতে গিয়ে আল আইন ডিফেন্ডার উলটো জড়িয়ে দেন জালে। এ নিয়ে সর্বশেষ পাঁচ আসরে চারটি ক্লাব বিশ্বকাপ শিরোপা পেল রিয়াল।

অন্য খবর  ‘বিরাট বিশ্বের সবথেকে অসভ্য ক্রিকেটার’

Comments

comments