কেরানীগঞ্জে দশম শ্রেনীর ছাত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

60

কেরানীগঞ্জে আজাদ (১৭) নামে দশম শ্রেনীর এক শিক্ষার্থীকে উপর্যুপুরি ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার রাতে কদমতলী খালপাড় এলাকায় রফিক মেম্বারের বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের বাবার নাম আমির হোসেন। আমবাগিচা এলাকায় তার ওষুধের দোকান রয়েছে। দোকানের পাশে বাসা ভাড়ায় পরিবার নিয়ে থাকেন তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাত ৮টার দিকে খালপাড় এলাকায় একদল কিশোর আজাদকে উপর্যুরিপুরি ছুরিকাঘাত করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১০ টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের বাবা আমির হোসেন জানান, তার ছেলে আগানগর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর শিক্ষার্থী ছিল। করোনা পরিস্থিতিতে স্কুল বন্ধ থাকায় ছেলেকে তিনি গ্রামের বাড়ি ভোলায় পাঠিয়েছিলেন। সোমবার সকালে আজাদ ভোলা থেকে কেরানীগঞ্জে আসে। বিকালে খেলার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়। এরপর রাতে শুনতে পাই কে বা কারা ওকে কুপিয়ে আহত করেছে। হাসপাতালে নেয়ার পর ও মারা যায়।

দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহাজামান জানান, দুই কিশোর গ্ররুপের বিরোধের জের ধরে আজাদকে ছুরিকাতে হত্যা করা হয়েছে বলে তারা জানতে পেরেছেন। হত্যায় জড়িত মালেক নামে এক কিশোরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। এঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। গ্রেফতার মালেকের তথ্যমতে জড়িত অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

অন্য খবর  করোনা উপসর্গ নিয়ে  কালিন্দা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতির মৃত্যু

এদিকে মঙ্গলবার সকালে হত্যাকান্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ঢাকা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ, দক্ষিন) মো: হুমায়ুন কবীর, কেরানীগঞ্জ সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রামানন্দ সরকার, দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহজামান সহ উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা।

Comments

comments