কবি নজরুলের মাঠে মেলার আয়োজন; জানে না প্রশাসন

191
কবি নজরুলের মাঠে মেলার আয়োজন জানে না প্রশাসন

দোহার উপজেলার কবি নজরুল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজন চলছে মাসব্যাপী শিল্পমেলার। প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে চলছে স্কুল মাঠে মেলার স্টল নির্মাণের কাজ। স্কুল মাঠে কেন মাসব্যাপী মেলার আয়োজন- জানতে চাইলে উপজেলা প্রশাসন ও থানা প্রশাসন জানায়, তারা কিছুই জানে না।

বিষয়টি নিয়ে হতাশ দোহারের অভিভাবক মহল। তারা এ বিষয়ে ঢাকা-১ (দোহার-নবাবগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সরেজমিনে গিয়ে মেলার দায়িত্বে থাকা দুই ব্যবস্থাপক আলমগীর ও টুটুলের সঙ্গে আলাপকালে তারা জানান, তাঁতশিল্প ও কুটিরশিল্প মেলার নামে প্রতি বছরই মাসব্যাপী এ মেলার আয়োজন করেন প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা ও ঢাকা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব রহমান। স্কুল মাঠে মাসব্যাপী আয়োজনে স্কুল কমিটির অনুমোদন রয়েছে কি-না, এমন প্রশ্নের উত্তরে আলমগীর বলেন, স্কুল কমিটির সভাপতি মাহাবুব রহমানের অনুমতি রয়েছে। সার্বিক বিষয়ে প্রতিবছর তিনিই দেখভাল করেন। সুতরাং ভেবেচিন্তে সংবাদ প্রকাশ করবেন।

অভিভাবকরা বলেন, স্কুল মাঠে মেলার বিষয়টিকে প্রশাসন কীভাবে অনুমতি দিল, তা আমাদের বোধগম্য নয়। তা ছাড়া মেলায় ড্রর নামে জুয়া ও অশ্নীল নৃত্য দেখে যুবসমাজ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

অন্য খবর  নবাবগঞ্জে বিদেশী পিস্তলসহ যুবক আটক

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মালিকান্দা অ্যান্ড মেঘুলা উচ্চ বিদ্যালয়ের একাধিক ছাত্র জানায়, মেলা ও ভ্যারাইটি শো প্রচারের মাইকগুলো এত উচ্চৈশব্দে প্রচার করে থাকে যা শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার মনোযোগ নষ্ট করে দেয়। এ ছাড়াও সামনে পরীক্ষা। এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে তারা।

মেলার বিষয়ে অনুমোদন রয়েছে কি-না, জানতে চাইলে দোহারের ইউএনও আফরোজা আক্তার রিবা বলেন, আমাদের কাছে এ মেলার কোনো অনুমোদন নেই এবং সংশ্নিষ্ট দপ্তরের কোনো কাগজপত্র এখনও আমরা হাতে পাইনি। সুতরাং এ মেলার আয়োজন অবৈধ বলে বিবেচিত।

এ বিষয়ে দোহার থানার ওসি মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, আমরা এখন পর্যন্ত এ মেলার কোনো অনুমতি পাইনি এবং এর আয়োজক কে জানি না। বর্তমান সময়ে এ মেলার আয়োজক যত প্রভাবশালীই হোক না কেন, অনুমতি ছাড়া কিছুই করা যাবে না।

Comments

comments