ওবায়দুল কাদেরের হার্ট অ্যাটাক; ৭২ ঘন্টার পর্যাবেক্ষনে

56
ওবায়দুল কাদের

চিকিৎসাধীন অবস্থায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের হার্ট অ্যাটাক হয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য কনক কান্তি বড়ুয়া সাংবাদিকদের আজ রোববার এ তথ্য জানান।

কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, আজ সকাল পৌনে ৮টার দিকে ওবায়দুল কাদের শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে আসেন। তখনই তাঁকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (সিসিইউ) স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর হার্ট অ্যাটাক হয়। পরে এনজিওগ্রাম করে দেখা যায়, তাঁর হৃদ্‌যন্ত্রে তিনটি ব্লক। একটিতে স্টেন্টিং করে দেওয়া হয়েছে।

বিএসএমএমইউর উপাচার্য বলেন, আপাতত ওবায়দুল কাদেরের অবস্থা স্থিতিশীল। তবে তিনি ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে থাকবেন।

হাসপাতালের প্রিভেন্টিভ অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন কার্ডিওলজির প্রধান হারিসুল হক বলেছেন, ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল হলেও তিনি শঙ্কামুক্ত নন। ৭২ ঘণ্টা পর এ ব্যাপারে বলা যাবে।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর জনসংযোগ কর্মকর্তা আবু নাছের বলেন, আজ ফজরের নামাজের পর হঠাৎ করে সেতুমন্ত্রীর শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা হচ্ছিল। তাঁকে দ্রুত বিএসএমএমইউতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁকে পরীক্ষা করেন চিকিৎসকেরা। তাঁকে এনজিওগ্রাম করার পরামর্শ দেওয়া হয়। চিকিৎসকের পরামর্শে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককে কার্ডিওলজি বিভাগে নেওয়া হয়। পরে ওবায়দুল কাদেরের এনজিওগ্রাম করা হয়। তাঁর হার্টে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটিতে রিং পরানো হয়।

অন্য খবর  দেশে এখন অন্ধকার শ্বাসরোধী পরিবেশ বিরাজ করছে: মির্জা ফখরুল

বিএসএমএমইউর কার্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান সৈয়দ আলী আহসান জানান, সকালের চেয়ে ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। তবে ৭২ ঘণ্টা পার না হলে কিছু বলা যাবে না।

ওবায়দুল কাদেরের সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চাওয়া হয়েছে।

Comments

comments