উদ্বোধন হলো দোহার-নবাবগঞ্জ সোশ্যাল মুভমেন্ট DNSM এর “মধ্যবিত্তদের উপহার” প্রকল্পের

39

ঢাকা জেলার দোহার ও নবাবগঞ্জ উপজেলার সবচেয়ে জনপ্রিয় ও আস্থার সামাজিক সংগঠন দোহার নবাবগঞ্জ সোস্যাল মুভমেন্ট (DNSM)এর পক্ষ থেকে মধ্যবিত্তদের উপহার প্রকল্পের উদ্বোধন হলো শনিবার। এই প্রকল্পের উদ্বোধন করেন দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফরোজা আক্তার রিবা।
এই সময় ফোনকল যাচাই বাছাই করে প্রায় ৩০০ পরিবারের মাঝে এই ইফতার সামগ্রী বিতরন করা হয়। ১৬ মে শনিবার থেকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের জন্য অসহায় দোহার ও নবাবগঞ্জের মধ্যবিত্ত পরিবারগুলোর মাঝে এই খাদ্যসামগ্রী পৌছে দেয়া হয়।
করোনা ভাইরাস মহামারীতে সাধারন মানুষের কাজ না থাকায় এক প্রকার অসহায় ও ক্ষুধার্ত অবস্থায় মধ্যেবিত্তরা আছেন চরম অসহায় অবস্থায়। তারা কারো কাছে বলতে পারেন না, হাত পাততে পারেন না৷
এই সময় এই অসহায় পরিবারগুলোর পাশে এসে দাড়ায় দোহার নবাবগঞ্জ সোস্যাল মুভমেন্ট সামাজিক সংগঠন । তাদের পক্ষ থেকে এই অসহায় ও দরিদ্র পরিবারগুলোর মাঝে ১২ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি তেল, ১ কেজি চিনি, ১ কেজি লবণ, ১ কেজি পিয়াজ, ২ কেজি আলু, ১ প্যাকেট সেমাই ও ১ টি সাবানসহ প্রায় ২০ কেজির প্যাকেট পৌছে দেয়া হচ্ছে।
৩রা মে সাংসদ সালমান এফ রহমানের আস্থাভাজন মশফিকুর লিমনের অনুপ্রেরণায় এই প্রকল্প শুরু করে DNSM. এরপর পর্যায়ক্রমে তানভীর হোসেন সানু মোল্লা, ইভো চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার সোহেল, হাবিবুর রহমান হেলাল, নাইম হোসেন, নুরুল হক ব্যাপারী, নয়াবাড়ি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শামীম আহমেদ হান্নান সহ দেশ বিদেশ থেকে অনুদান সংগ্রহ করা হয়।
দোহার উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী কর্মকর্তা আফরোজা আক্তার রিবা বলেন, উপজেলা প্রশাসন সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে যেন কেউ অভুক্ত না থাকে। এর বাইরে যারা লজ্জ্বায় বলতে পারেন না, তাদের জন্য দোহার নবাবগঞ্জ সোশ্যাল মুভমেন্ট এর এমন উদ্যোগ সত্যই প্রশংসনীয় এবং আমাদের কাজকে এই উদ্যোগ সহজ করেছে। আমার পক্ষ থেকে তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই এবং ভবিষ্যতেও পাশে থাকার প্রত্যাশা করি।
দোহার নবাবগঞ্জ সোশ্যাল মুভমেন্ট এর সভাপতি তারেক রাজীব বলেন, সকল দূর্যোগে দোহার নবাবগঞ্জ সোশ্যাল মুভমেন্ট সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালিয়েছে মানুষের পাশে থেকে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে। এবার ২২ শে মার্চ প্রথম আমরাই দোহার নবাবগঞ্জে ত্রাণ বিতরণ শুরু করি। প্রায় ১১৭ পরিবারে ত্রাণ দেয়া হয়েছে। এরপর ২৬ মার্চ প্রথম দোহার নবাবগঞ্জে জীবাণুনাশক স্প্রে কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। এরপর ১৯ এপ্রিল আমরা ৪৩৩ পরিবারে ত্রাণ বিতরণ করি। এছাড়া দোহার উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় ১০০ পরিবারে ত্রাণ বিতরণ হয়। ৩রা মে সাংসদ সালমান এফ রহমানের আস্থাভাজন মসফিকুর লিমন ভাইয়ের উৎসাহে মধ্যবিত্তদের প্রকল্প শুরু করি। প্রায় ২৮০ মধ্যবিত্ত ও ২০ টি নিম্নবিত্ত পরিবারে এই সহায়তা ইনশাআল্লাহ পৌছে দেয়া হবে।
যারা অনুপ্রেরণা দিয়েছেন, অনুদান দিয়েছেন, পাশে থেকেছেন, তথ্য দিয়েছেন তারাসহ সকল স্বেচ্ছাসেবীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।একই সাথে দোহার উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসন এবং নিউজ৩৯ কে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।
আমরা ভবিষ্যতেও এই কাজ চলমান রাখতে পারবো যদি আল্লাহর রহমতে আপনারা এগিয়ে আসেন।

অন্য খবর  দোহারে অসহায়দের পাশে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আলমগীর হোসেন

Comments

comments