ইরানের সরকার পরিবর্তন করা যুক্তরাষ্ট্রের লক্ষ্য নয়: জন বোল্টন

34
ইরানের সরকার পরিবর্তন

ইরানের সরকার পরিবর্তন করা যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান ট্রাম্প প্রশাসনের  লক্ষ্য নয় বলে দাবি করেছেন হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন। এর আগে ইরানের সরকার পরিবর্তনে যুক্তরাষ্ট্রের চাপ দেওয়া উচিত বলে পরামর্শ ‍দিয়েছিলেন তিনি। তবে রবিবার অস্ট্রেলিয়ান সংবাদমাধ্যম এবিসি’র এক অনুষ্ঠানে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় তিনি এই কথা বলেন।

অস্ট্রেলিয়ান সংবাদমাধ্যম এবিসি’র ‘দিস উইক’ অনুষ্ঠানে বোল্টন বলেন, ‘এটা বর্তমান প্রশাসনের লক্ষ্য নয়। প্রশাসনের লক্ষ্য হলো ইরান যাতে কখনওই পরমাণু অস্ত্র তৈরির কাছাকাছি না যেতে পারে তা নিশ্চিত করা’। সিএনএন’র ‘স্টেট অব দ্য ইউনিয়ন’ অনুষ্ঠানে ইরানের সরকার পরিবর্তন করতে চাওয়ার বিষয়টি সামনে আনা হলে বোল্টন বলেন, ‘দায়িত্বের বাইরে থাকার বছরগুলোতে আমি অনেক কিছু লিখেছি ও বলেছি’।

জন বোল্টনকে গত মার্চ মাসে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা এইচ আর ম্যাকমাস্টারের স্থলাভিষিক্ত করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সিএনএনকে দেওয়া ওই সাক্ষাৎকারের বিষয়ে তিনি বলেন, ট্রাম্পকে পরামর্শ দেওয়া তার দায়িত্ব তবে সিদ্ধান্ত কেবল প্রেসিডেন্টই নিতে পারেন। বোল্টন বলেন, ‘এখন আমার অবস্থা হলো আমি প্রেসিডেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা। জাতীয় নিরাপত্তা সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী নই। তিনি (ট্রাম্প) সিদ্ধান্ত নেন আর আমি তাকে দেওয়া আমার পরামর্শ নিজেদের মধ্যেই থাকে’।

অন্য খবর  সিঙ্গাপুরে পৌঁছালেন ট্রাম্প-কিম

গত জানুয়ারিতে ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বোল্টন বলেছিলেন, ইরানের ওপর অর্থনৈতিক চাপ বাড়ানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। একই সঙ্গে সরকার বিরোধীদেরও সহায়তা করা দরকার। বোল্টন বলেছিলেন, ‘সেখানে আমরা অনেক কিছু করতে পারি আর আমাদের তা করা উচিত’। তিনি বলেছিলেন, আমাদের লক্ষ্য হওয়া উচিত ইরানের সরকার পরিবর্তন করা।

২০১৫ সালের ইরানের পরমাণু স্থাপনায় বিমান হামলা চালানো দাবি জানিয়ে নিউ ইয়র্ক টাইমস উপসম্পাদকীয় লিখেছিলেন জন বোল্টন। ২০১৬ সালে তিনি ইরানের সরকার পরিবর্তন করতে চেষ্টা করার কথা বলেছিলেন। ওই সময় তাকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার চিন্তা করা হচ্ছিল।

Comments

comments