ইউটিউবের জনপ্রিয়তা বেড়েছে

28
ইউটিউব

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর মধ্যে জনপ্রিয়তার দিক থেকে ফেসবুককে পেছনে ফেলেছে ইউটিউব। বিশেষ করে কিশোররা ফেসবুকের চেয়ে ইউটিউবকে বেশি পছন্দ করছে বলে এক গবেষণায় উঠে এসেছে।

পিউ রিসার্চ সেন্টারের জরিপ বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের ৮৫ শতাংশ কিশোর (যাদের বয়স ১৩ থেকে ১৭) ইউটিউব ব্যবহার করে। যেখানে ৭২ শতাংশ ইনস্টাগ্রাম ও ৬৯ শতাংশ কিশোর স্ন্যাপচ্যাট ব্যবহার করে। অন্যদিকে এদের মধ্যে ফেসবুক ব্যবহার করে মাত্র ৫১ শতাংশ।

জরিপ প্রতিবেদনটি এ সপ্তাহে প্রকাশ করা হয়েছে। এটা মার্চের ৭ তারিখ থেকে এপ্রিলের ১০ তারিখ পর্যন্ত পরিচালিত হয়। জরিপে ৭৪৩ জন কিশোর অংশ নেয়।

পিউ রিসার্চ সেন্টারের জরিপ বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রের কিশোরদের মধ্যে আগের চেয়ে ফেসবুক ব্যবহারের প্রবণতা অনেক কমেছে। ২০১৪-১৫ সালের জরিপে দেখা যায়, ৭১ শতাংশ কিশোর ফেসবুক ব্যবহারকারী ছিল। অর্থাৎ তখনকার চেয়ে বর্তমানে ফেসবুক ব্যবহারকারী কমেছে ২০ শতাংশ।

গেজেটস নাউয়ের প্রতিবেদনে ফেসবুকের জনপ্রিয়তা কমে যাওয়ার কারণ হিসেবে প্রতিষ্ঠানটির সংকটপূর্ণ অবস্থাকে দায়ী করা হয়েছে। সম্প্রতি ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকার মাধ্যমে গ্রাহকদের তথ্য অপব্যবহার কেলেঙ্কারির পর কিছুটা আস্থা হারিয়েছে ফেসবুক।

অন্য খবর  ইউটিউবে নতুন নাটক ‘অপেক্ষা’

গবেষণা প্রতিবেদন বলছে, বর্তমানে ৯৫ শতাংশ কিশোরের স্মার্টফোন ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে। আগে এই পরিমাণ ছিল ৭৩ শতাংশ।

গবেষণায় অংশ নেওয়া প্রায় অর্ধেক কিশোর মনে করে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যবহার তাদের ওপর যে প্রভাব ফেলছে তা নিরপেক্ষ। ৩১ শতাংশ মনে করে এগুলোর ইতিবাচক প্রভাব রয়েছে এবং ২৪ শতাংশ মনে করে, এগুলোর প্রভাব নেতিবাচক।

Comments

comments