ইংল্যান্ডের চেয়ে পেরুর বিশ্বকাপ জয়ের সম্ভাবনা বেশি!

আপনি হয়তো শিরোনামটা পড়ে ভাববেন, নিশ্চয় কোথাও কোনো ভুল হয়েছে। ইংল্যান্ডের চেয়ে পেরুর বিশ্বকাপ জেতার সম্ভাবনা বেশি, ব্যাপারটা আসলে বিশ্বাস করার মতোও নয়। তবে দাবিটা এমন একটা প্রতিষ্ঠানের, সেজন্য সেটা হেসেও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। গ্রেসনোট নামের যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটি ফুটবল পরিসংখ্যান নিয়ে কাজ করছে অনেক দিন থেকেই। ফিফা র‍্যাঙ্কিং ও দলীয় শক্তি বিবেচনা করে তারা ১০ লাখ বার পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়েছে। সেখানেই উঠে এসেছে এই ভবিষ্যতবাণী।

গ্রেসনোটের হিসেব মতে, এবারে বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের জেতার সম্ভাবনা ৪ শতাংশ। আর পেরুর ক্ষেত্রে সেটা ৫ শতাংশ। ৫ শতাংশ সম্ভাবনা আছে কলম্বিয়ার। আর শুধু ইংল্যান্ড নয়, বেলজিয়াম ও পর্তুগালও পেরু-কলম্বিয়ার চেয়ে পিছিয়ে আছে, এই দুই দলেরই জেতার সম্ভাবনা ধরা হয়েছে ৪ শতাংশ।

সবচেয়ে বেশি ২১ শতাংশ জয়ের সম্ভাবনা আছে ব্রাজিলের। ১০ শতাংশ সম্ভাবনা নিয়ে এর পরেই আছে স্পেন। আর্জেন্টিনা ও জার্মানির জয়ের সম্ভাবনা একই, দুই দলেরই ৮ শতাংশ। আর ৬ শতাংশ সম্ভাবনা আছে ফ্রান্সের।

গ্রেসনোট বলছে, বিশ্বকাপে এবার নতুন চ্যাম্পিয়ন দেখার সম্ভাবনা ৪৭ শতাংশ। তার মানে, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, জার্মানি, স্পেন, ফ্রান্স, উরুগুয়ে, ইংল্যান্ডের বাইরে এবার নতুন দল জেতার সম্ভাবনা আছে ভালোমতোই। শেষ ষোলোতে ইউরোপ ও লাতিন আমেরিকার দলগুলোর প্রাধান্য থাকবে বলে তাদের ভবিষ্যতবাণী। ১৬টির মধ্যে ১০টি দল থাকবে ইউরোপের, পাঁচটি থাকবে লাতিন আমেরিকার। আর সেন্ট্রাল আমেরিকা থেকে যাবে একটি। আফ্রিকার দলগুলোর মধ্যে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি সেনেগালের, ৪৫ শতাংশ।

অন্য খবর  ২০২৬ সালের বিশ্বকাপ আয়োজক হতে ৪১টি শহরের আবেদন

Comments

comments