আক্কাচ উদ্দিন মোল্লার পৃষ্ঠপোষকতায় নবাবগঞ্জে বৃদ্ধাশ্রম প্রতিষ্ঠিত

240
আক্কাচ উদ্দিন মোল্লা

উসমান গ্রুপ অব কোম্পানী ও শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের চেয়ারম্যান আক্কাচ উদ্দিন মোল্লার সরাসরি পৃষ্ঠপোষকতায় ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার শিকারীপাড়া ইউনিয়নের কান্দাবাড়িল্যা গ্রামে প্রতিষ্ঠিত হলো বৃদ্ধাশ্রম সম্মান সাহাবী ওল্ড কেয়ার হোম। দোহার-নবাবগঞ্জসহ সারা বাংলাদেশের অবহেলিত যেকোন বৃদ্ধ বাবা-মায়ের সম্মান জনক পূর্নবাসনের উদ্দেশ্যে এই বৃদ্ধাশ্রম চালু করা হয়েছে। ১ জুলাই বুধবার এই বৃদ্ধাশ্রমের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

 

 

সারা জীবনের অর্থ দিয়ে, নিজের প্ররিশ্রমের টাকা দিয়ে, নিজে না খেয়ে সন্তানদের মানুষ করে অনেক বাবা-মা পাননা সন্তানদের কাছ থেকে প্রাপ্য সম্মান। তাদের কথা চিন্তা করে নবাবগঞ্জের পশ্চিম এলাকার গর্ব,অগনিত মানবসেবামূলক উন্নয়ন কাজের স্বপ্নদ্রষ্টা, সফল উদ্যোক্তা আক্কাচ উদ্দিন মোল্লা প্রতিষ্ঠা করেছেন এই বৃদ্ধাশ্রম। শুধু দোহার-নবাবগঞ্জ না, সারা দেশের অসহায় বৃদ্ধ মা-বাবা ও সন্তানহীন বৃদ্ধ লোকদের জন্য খোলা থাকবে এই বৃদ্ধাশ্রম। অসহায় বৃদ্ধ বাবা- মা’ দের শেষ জীবনের অন্ন,বস্ত্র,বাসস্থান,বিনোদন,ধর্মীয় শিক্ষা ও চিকিৎসা সেবাসহ সব ধরনের সেবার ব্যবস্থা থাকবে এই বৃদ্ধাশ্রমে।

 

 

এই সময় আক্কাচ উদ্দিন মোল্লা বলেন, শুধু বৃদ্ধ নয়, তিনি যুবকদের জন্যও কিছু করতে চান। চাকরির অভাবের এই সময় তিনি যুবকদের করতে চান স্বাবলম্বী। এই লক্ষে তিনি নবাবগঞ্জে একটি টেকনিক্যাল কলেজ প্রতিষ্ঠা করতে চান এবং জনমানুষের সেবার জন্য প্রতিষ্ঠা করতে চান একটি হাসপাতাল। এই কাজগুলো বাস্তবায়ন করতে তিনি সহযোগীতা চান সকলের।

অন্য খবর  কৈলাইল ও বাহ্রায় বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচনী ক্যাম্প ভাংচুর

 

 

আক্কাচ উদ্দিন মোল্লার ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে তিনি ইতিমধ্যে চাকুরির ব্যবস্থা করেছেন নবাবগঞ্জের কয়েকশ শিক্ষিত যুবকের। শাহাজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে প্রতিবছর বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকার ৫০০ মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করে তাদের লেখাপড়ার পথকে আরও সহজ করে দিচ্ছেন  এই মানুষটি। নবাবগঞ্জের পশ্চিম অঞ্চলকে তিনি গড়ে তুলতে চান স্বনির্ভর অঞ্চল হিসাবে।

Comments

comments