অল্পের জন্য বড় ধরনের বিপদ থেকে রক্ষা পেয়েছি: সাকিব

19
সাকিব

দেশে ফিরেই হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে সাকিব আল হাসানকে। সেখানে একটি অস্ত্রোপচারও করতে হয়েছে বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ককে। সাকিব বলেছেন, “খুব বড় ধরনের বিপদ থেকে এ যাত্রায় রক্ষা” পেয়েছেন তিনি।

এশিয়া কাপে পাকিস্তানের সঙ্গে কার্যত সেমিফাইনাল বনে যাওয়া ম্যাচ খেলতে পারেননি সাকিব। চোটের কারণে আঙুল ফুলে ছিল তার, দেশে ফিরেছিলেন সে রাতেই। এরপর অস্ত্রোপচারের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা ছিল, তবে সাকিবকে পড়তে হয়েছে জরুরী পরিস্থিতিতে।

“হাতের ব্যাথায় যখন দল ছেড়ে দেশে ফিরছি তখনও বুঝতে পারিনি এত খারাপ পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হবে”, ফেসবুক-ইন্সটাগ্রামের এক পোস্টে হাসপাতালের বেডে শোয়া অবস্থায় একটা ছবি পোস্ট করে লিখেছেন সাকিব।

“দেশে আসার পর প্রচন্ড ব্যথা অনুভব ও হাত অস্বাভাবিক রকম ফুলে যাওয়ায় দ্রুত হসপিটালে অ্যাডমিট হয়ে একটি অস্ত্রোপচার করাতে হয়েছে। আঙ্গুলের ভেতর ইনফেকশনের ফলে ৬০-৭০ সে: মি: পুঁজ বের করতে হয়েছে।

“আপনাদের দোয়ায় খুব অল্পের জন্য বড় ধরনের বিপদ থেকে এই যাত্রায় রক্ষা পেয়েছি তবে দ্রুতই আরও একটি অস্ত্রোপচার করাতে হবে।”

ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ফিল্ডিংয়ের সময় বাঁহাতের আঙুলে এই চোট পান সাকিব। এরপর থেকে সেই ব্যথা রয়ে গেছে তার, খেলে গেছেন সেভাবেই। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর থেকে ফিরে নিজের অস্ত্রোপচারের প্রয়োজনীয়তার কথা জানালেও এশিয়া কাপের আগে সেটা করানো হয়নি তার। বোর্ড প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান জানিয়েছিলেন, এশিয়া কাপের মতো গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্টে সাকিবের মতো ক্রিকেটারকে প্রয়োজন। তার অস্ত্রোপচার তাই জিম্বাবুয়ে সিরিজের সময়ই করা হবে।

অন্য খবর  অস্ট্রেলিয়া সিরিজ চূড়ান্ত: বিসিবি প্রধান

এরপর সাকিব কতখানি ফিট, সেসব নিয়ে তৈরী হয়েছিল ধোঁয়াশা। তবে শেষ পর্যন্ত এশিয়া কাপের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দুই ম্যাচেই তাকে মিস করেছে বাংলাদেশ।

সাকিব অবশ্য শীঘ্রই মাঠে ফেরার ব্যাপারে দোয়া চেয়েছেন, “আপনাদের সকলের দোয়া প্রার্থনা করছি। আপনাদের দোয়া ও ভালবাসায় দ্রুত সুস্থ হয়ে বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধিত্ব করতে পারি। ধন্যবাদ..”

Comments

comments