‘অপারেশন জ্যাকপট’ ছবির মহরত ১৬ আগস্ট

30
অপারেশন জ্যাকপট

১৯৭১ সালের ১৫ ও ১৬ আগস্ট মুক্তিবাহিনীর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নৌ-কমান্ডোরা তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের সমুদ্রবন্দর ও প্রধান নদী বন্দরগুলোতে একযোগে অভিযান চালান। এর নাম ছিল ‘অপারেশন জ্যাকপট’। সেই সময়ে আকাশবাণী রেডিওতে প্রচারিত ‘আমার পুতুল আজকে যাবে প্রথম শ্বশুরবাড়ি’ গানটি ছিল কমান্ডোদের জন্য এই অভিযানের সংকেত। এর বিশালতা ও ক্ষয়ক্ষতি ছিল ব্যাপক, যা পাকিস্তানসহ বিশ্বকে হতভম্ব করে দেয়। বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রচার হয়েছিল এই অভিযানের খবর।

১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে সমুদ্র ও নদী বন্দরগুলোতে নৌ-কমান্ডোদের একযোগে পরিচালিত সফল অভিযান অবলম্বনে তৈরি হচ্ছে একটি ছবি। ‘অপারেশন জ্যাকপট’-এর তারিখকে মাথায় রেখে আগামী ১৬ আগস্ট হবে এর মহরত। রবিবার (১০ জুন) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সভায় এই তথ্য জানানো হয়।

‘মনপুরা’ ও ‘স্বপ্নজাল’-এর পর এটি হবে গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালনা তৃতীয় ছবি। এর পান্ডুলিপি তৈরি করেছেন তিনিই। মুক্তিযুদ্ধে চট্টগ্রাম বন্দরের অবদান ও নৌ-কমান্ডোদের দুঃসাহসী অভিযানকে স্মরণীয় করে রাখতে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অধীনে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের নিজস্ব অর্থায়নে তৈরি হবে ছবিটি।

‘অপারেশন জ্যাকপট‘ কীভাবে তৈরি হবে, দেশি-বিদেশি কারা এর সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকবেন ও ছবিটিতে কোন কোন বিষয় তুলে ধরা হবে, সেই বিষয়ে একটি ভিডিও উপস্থাপন করা হয় বৈঠকে।

অন্য খবর  তিন দিনেই দিলওয়ালের শত কোটি, পিছনে বাজিরাও মাস্তানি

নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের সভাপতিত্বে রবিবারের বৈঠকে ছিলেন ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেজর (অব:) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম।

Comments

comments